Last update
Loading...

উপনির্বাচনে বিজেপি’র পরাজয়কে 'মহান জয়' বললেন মমতা

ভারতের উত্তর প্রদেশ ও বিহারে উপনির্বাচনে বিজেপি পরাজিত হওয়ায় বিরোধীরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। 
পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল নেত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি’র পরাজয় সম্পর্কে বলেছেন, এটা মহান জয়। মায়াবতী ও অখিলেশকে শুভেচ্ছা। এই জয় আসলে বিজেপি’র শেষের শুরু। মমতা বিহারের জয় সম্পর্কে আরজেডি প্রধান লালুপ্রসাদ যাদবকেও অভিনন্দন জানিয়েছেন।
সমাজবাদী পার্টির নেতা আবু আজমী বলেছেন, এটা সেমিফাইনাল, ২০১৯ সালে ফাইনাল নির্বাচন হবে। আমি নিশ্চিত যে ২০১৯ সালে আরো ভালো ফল হবে।
গত ১১ মার্চ বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশের গোরক্ষপুর এবং ফুলপুর লোকসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়। এছাড়া, জেডিইউ-বিজেপি শাসিত বিহারের অররিয়া লোকসভা কেন্দ্র ও ভবুয়া এবং জাহানাবাদ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়।
রাজ্য বিধানসভায় নির্বাচিত হওয়ার পর উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ গোরক্ষপুর আসন ও উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশবপ্রসাদ মৌর্য লোকসভা আসনে পদত্যাগ করায় ওই আসন দুটি শূন্য হয়। অন্যদিকে, বিহারের আরারিয়া আসনে আরজেডি এমপি মুহাম্মদ তাসলিমুদ্দিনের মৃত্যুতে ওই আসনটি শূন্য হয়। 
উত্তর প্রদেশে উপনির্বাচন হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ একে মর্যাদার লড়াই হিসেবে অভিহিত করে বিজেপি আগের চেয়েও বেশি ভোটের ব্যবধানে জয়ী হবে বলে দাবি করেছিলেন। কিন্তু বাস্তবে বিপরীত ফল হয়েছে।  
উত্তর প্রদেশের দুটি কেন্দ্রেই অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টিকে সমর্থন জানিয়েছিল বহুজন সমাজ পার্টির মায়াবতী।
আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত বেসরকারি ফলে প্রকাশ, উত্তর প্রদেশের ফুলপুর আসনে সমাজবাদী প্রার্থী বিজেপি প্রার্থীকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন। গোরক্ষপুর আসনে বিজেপি পিছিয়ে রয়েছেন।
বিহারের আরারিয়া লোকসভা আসনে আরজেডি প্রাথী সরফরাজ আলম বিজেপি প্রার্থী প্রদীপ সিংকে পরাজিত করে জয়ী হয়েছেন।
অন্যদিকে, বিহারের জাহানাবাদ বিধানসভা আসনে আরজেডি প্রার্থী জেডিইউ প্রার্থীকে পরাজিত করে জয়ী হয়েছেন। ভবুয়া বিধানসভা আসনে জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী।

0 comments:

Post a Comment