Last update
Loading...

সৎকারের পর দিন ‘মৃত বাবা’ বাড়িতে হাজির!

আত্মহত্যার পর বাবার লাশ শনাক্ত করেন ছেলেরা। ময়নাতদন্ত শেষে তার সৎকারও করা হয়। কিন্তু পর দিনই ‘মৃত বাবা’ বাড়িতে এসে হাজির। পরিবারের সদস্যরা তাকে দেখে রীতিমতো হতভম্ব। ভারতের জলপাইগুঁড়ির মাল ব্লকের ক্রান্তিতে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।
শুক্রবার গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় মালবাজার মহকুমার ওদলাবাড়ি বাজার থেকে গিরেন রায় (৫৪) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃতের দুই ছেলেসহ পরিবারের অন্যরা এসে তার লাশ শনাক্ত করেন। ছেলেরা জানান, বাবা গত চার বছর ধরে মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। কখনও বাড়িতে থাকতেন, কখনও বাইরে চলে যেতেন। শুক্রবার জলপাইগুঁড়িতে ময়নাতদন্তের পর, কাঠামবাড়ি এলাকায় বাবার মৃতদেহ সৎকার করেন ছেলেরা। কিন্তু পর দিন শনিবার গিরেন রায়কে ক্রান্তি এলাকার বাজারে ঘুরে বেড়াতে দেখে হতবাক হয়ে যান এলাকার মানুষ। যে ব্যক্তিকে শুক্রবার রাতে শ্মশানঘাটে জ্বালিয়ে সৎকার করা হল, সেই ব্যক্তি আবার বাজারে কীভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছেন! মৃতের দুই ছেলে সঞ্জিত ও বিশ্বজিৎ জানান, যিনি জীবিত অবস্থায় বাড়িতে এসেছেন, তিনিই তাদের বাবা। এখন প্রশ্ন উঠেছে- তা হলে শনিবার রাতে যার সৎকার করা হল, তিনি কে? এদিকে রোববার সকাল থেকে গিরেন রায়কে দেখতে ভিড় করেছেন এলাকার মানুষ। ক্রান্তি ফাঁড়ির পুলিশও ঘটনার কোনো কুলকিনারা পাচ্ছে না।

0 comments:

Post a Comment