Last update
Loading...

বিজ্ঞানের জটিল তত্ত্বকে সাধারণের উপযোগী করে তোলেন হকিং



অধ্যাপক স্টিফেন হকিংকে সবার আগে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ওয়েবের উদ্ভাবক টিম বার্নার্স লি। তিনি বলেন, আমরা বিশাল হৃদয়ের অধিকারী একটা মানুষকে হারিয়েছি। তিনি একজন প্রাণবন্ত মানুষ ছিলেন। শান্তিতে থাকুন হকিং। মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী সত্য নাদেলা বলেন, আমরা আজ একজন বড়মাপের মানুষকে হারিয়েছি। বিজ্ঞানে তার অবিশ্বাস্য অবদানের জন্যই তিনি টিকে থাকবেন। তিনি জটিল তত্ত্ব ও ধারণাকে সাধারণ মানুষের প্রবেশের উপযোগী করে তুলেছেন। তিনি আরও বলেন, মহাবিশ্ব সম্পর্কে পূর্ণ ধারণা পেতে তিনি সীমাহীন চেষ্টা করে গেছেন। যদিও এ জন্য তাকে বাধার মুখোমুখি হতে হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা এক টুইটার বার্তায় বলেছে, আমরা এই বিখ্যাত পদার্থবিদ ও বিজ্ঞানের প্রতিনিধিকে স্মরণ করছি। তার তত্ত্ব মহাবিশ্বের সম্ভাবনার দ্বার খুলে দিয়েছে।
আমরা এখন মহাবিশ্ব সম্পর্কে নতুন অনুসন্ধানে বের হতে পারছি। ১৯৪২ সালের ৮ অক্টোবর অক্সফোর্ডে জন্ম নেয়া স্টিফেন হকিং পদার্থবিদ্যার ইতিহাসে সেরা তাত্ত্বিক। বুধবার ৭৬ বছর বয়সে তিনি পরলোকগমন করেছেন। বুধবার এক বিবৃতিতে স্টিফেন হকিংয়ের মৃত্যুর খবর জানান তার সন্তান লুসি রবার্ট ও টিম। বিবৃতিতে তারা বলেন, প্রাণপ্রিয় বাবাকে হারিয়ে আমরা শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েছি। তিনি ছিলেন একজন বড়মাপের বিজ্ঞানী ও অসাধারণ মানুষ। তার কাজ ও গ্রহণযোগ্যতা বহু বছর ধরে টিকে থাকবে। তার সাহস ও কাজ পৃথিবীর বহু মানুষকে উৎসাহিত করেছে। আমরা তাকে চিরকাল মনে রাখব। অ্যাপলের সহপ্রতিষ্ঠাতা স্টিফ ওজনিয়াক বলেন, হকিংয়ের সততা ও বিজ্ঞানের প্রতি ত্যাগ-তিতিক্ষা তাকে সত্যিকার প্রতিভারও ঊর্ধ্বে নিয়ে গেছে।

0 comments:

Post a Comment