Last update
Loading...

স্ত্রীর জালিয়াতিতে ‘নড়ছে’ শিনজো আবের চেয়ার

সরকারি জমি বিক্রি নিয়ে স্ত্রীর জালিয়াতিতে শঙ্কায় পড়েছে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ। দেশের জনগণ থেকে শুরু করে বিরোধী দলের নেতারা প্রধানমন্ত্রীর দিকে আঙুল তুলতে শুরু করেছেন। এরই মধ্যে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো প্রশ্ন তুলেছে আবের পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে। সংবাদমাধ্যমগুলো মনে করছে এই জালিয়াতির ফলে আবের তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসা নিয়ে সংশয় তৈরি হতে পারে। সাধারণ জনগণের মনে অনেক প্রশ্ন বিরাজ করছে। কার নির্দেশে এমনটা হয়েছে? এর পেছনে কি কারণ লুকিয়ে আছে? শুধু তাই নয়, অর্থ মন্ত্রণালয়কে ঘিরেও তাদের রয়েছে অনেক প্রশ্ন। খবর রয়টার্স ও দ্য গার্ডিয়ানের। গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী একিই’র বিরুদ্ধে সরকারি জমি বিক্রির নথি নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ ওঠে। তারপর গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি।
এই কমিটির মতে, স্ত্রী একিই একটি প্রাইমারি স্কুলের মালিককে কম দামে জমি পেতে সাহায্য করেন। স্কুলের গভর্নিং বডি একিইকে সেই স্কুলের সম্মানিত অধ্যক্ষ হিসেবে ঘোষণা করে। এরপর স্কুলের একদিনের সফর নিয়ে তিনি স্কুল পরিচালকের হাতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে এক মিলিয়ন ইয়েন অনুদান দিয়ে আসেন। সেই অর্থের কোনো হিসাব এখনও পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে তথ্য ও নথিপত্র চাওয়া হয়। কিন্তু মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কোনোরকম সাহায্য বা তথ্য দেয়া হয়নি। উল্টো তারা বেশ কিছু ঘটনার মূল নথি থেকে তথ্য সরিয়ে ফেলে সেসময়। অর্থ মন্ত্রণালয়ের ওপর জনগণ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে চাপ ক্রমাগত বাড়তে থাকে। গত শুক্রবার মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ কর অধিদফতরের প্রধান নুবহিসা সাগাওয়া পদত্যাগ করেন।

0 comments:

Post a Comment