Last update
Loading...

সেলিব্রেটিদের প্রথম যৌন সম্পর্ক-১

কেট মস, সিন কনারি, জর্জ হ্যামিলটন, জনি ডেপ, অ্যানজেলিনা জোলি, এলিজাবেথ টেলর (লিজ টেলর) পশ্চিমা বিনোদন জগতের একগুচ্ছ নাম। তারা কেউ অভিনেত্রী, অভিনেতা আবার কেউ বা মডেল। তাদের রূপের ঝলকে কোটি কোটি হৃদয়ে ঝড় ওঠে। এর মধ্যে বেশির ভাগই সেক্স সিম্বল হিসেবে তোলপাড় করে দিয়েছেন বিশ্বকে। তবে তারা অল্প বয়সেই হারিয়েছেন কুমারিত্ব অথবা কুমারত্ব। স্বেচ্ছায় অথবা শক্তি অথবা কৌশলের কাছে পরাজিত হয়ে তারা বাধ্য হয়েছেন যৌন সম্পর্ক স্থাপনে।
পশ্চিমা দুনিয়ায় ঝড় তোলা মডেল কেট মসতো মাত্র ১৪ বছর বয়সেই যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি তা। বলেছেন বাহামায় পারিবারিক ছুটি কাটাতে গিয়ে তিনি হারান কুমারিত্ব। তিনি ‘লাভ’ ম্যাগাজিনকে বলেছেন, বাসায় ফেরার পথে বিমানবন্দরেই এক মডেল স্কাউট তাকে থামান। সেখানেই আমাকে হারাতে হয় আমার কুমারিত্ব। অন্যদিকে বন্ড অভিনেতা সিন কনারি মাত্র ৮ বছর বয়সে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। তার বয়স এখন ৮৭ বছর। তিনি ‘ফর ওমেন’ ম্যাগাজিনের কাছে স্বীকার করেছেন, তখন আমার বয়স মাত্র আট বছর। এ সময়েই আমি যৌন সম্পর্ক স্থাপন করি। তবে কার সঙ্গে, কিভাবে সেই সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল তা এখন আর মনে করতে পারি না। সব সময়েই আমি যুবতীদের ভালবাসি। বিশেষ করে যাদের স্বর্ণালী চুল। চকচকে চেহরা। তবে বিদেশীদেরকেই আমার বেশি পছন্দ। বৃটিশ বা আমেরিকান নারীদের চেয়ে তারা বেশি আকর্ষণীয়। এ সময়ে হলিউডের বহুল আলোচিত, আকর্ষণীয় অভিনেত্রী অ্যানজেলিনা জোলি। বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দরী, আকর্ষণীয় হিসেবে তিনি একাধিক নির্বাচিত হয়েছেন পাঠকের ভোটে। এখন তিনি অভিনয় ও মানবিক কর্মকাণ্ড নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। তিনি নিজেই স্বীকার করেছেন, মাত্র ১৪ বছর বয়সেই যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। অ্যানজেলিনা জোলি বলেন, আমার বয়স তখন ১৪ বছর। তখনই আমার বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক শুরু করি। এই যৌন সম্পর্ক ও আবেগ আমার কাছে যথেষ্ঠ ছিল না। কারণ, তখন আমি আর ছোট্ট মেয়েটি নই। আমার বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে একান্তে মিলিত হওয়ার মুহূর্তে আমি একটি ছুরি নিতাম হাতে এবং তার শরীর কেটে দিতাম। সে কেটে দিতো আমার শরীরের পিছন দিকটায়। আমাদের শরীর তখন রক্তে ভেসে যেতো। সাক্ষাতকারে অ্যানজেলিনা জোলি এসব কথা বলেছেন। তিনি সাফ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়া অবস্থায়ই তিনি যৌন সম্পর্কে সক্রিয় হয়ে ওঠেন। তিনি বলেছেন, যখনই ছেলেদের কাছে পেতেন তখনই পোশাক ছুড়ে ফেলে দিয়ে শুরু করতেন উদ্দামতা। অভিনেতা জর্ক। তিনি লেডি কিলার বা নারী শিকারী হিসেবেই বেশি পরিচিতি পেয়েছেন। তিনি স্বীকার করেছেন ১৯৫১ সালে তার বয়স যখন মাত্র ১২ বছর তখনই প্রথমবার যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন তিনি। এক্ষেত্রে বিস্ময়কর হলো, এমন একজন নারীর সঙ্গে তিনি এ সম্পর্ক গড়েছিলেন যার সঙ্গে তার সম্পর্ক অন্য রকম হওয়ার কথা ছিল। ওই নারী ছিলেন গায়িকা জুন হাওয়ার্ড। জর্জ সাক্ষাতকারে এ নিয়ে বলেছেন, জুন ছিলেন একজন আবেগঘন সিংহের মতো। সে এক অন্য অভিজ্ঞতা। জর্জ বলেন, একদিন বৃষ্টির দিন। আমরা নিউ ইয়র্কের এপার্টমেন্টে। সেখানে তখন দিন। আমি শুয়ে আছি একটি বিছানার ওপর। এ সময় খোলামেলা পোশাকে জুন হাওয়ার্ড আমার কাছে এলেন। আমার সঙ্গে শুয়ে পড়লেন। অন্যরকম দাবি তুললেন। ‘দ্য পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবির অভিনেতা জনি ডেপ। তিনি স্বীকার করেছেন মাত্র ১৩ বছর বয়সে তিনি সরাসরি যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। আর সেটা ঘটেছিল একটি গাড়ির পিছনের সিটে। ওই সময় তিনি ছিলেন ‘ফ্লেম’ নামের একটি ব্যান্ডের গিটারিস্ট। আর তার যৌন লালসার শিকার মেয়েটি ছিলেন তারই এক ভক্ত। এ ছাড়া তিনি চুটিয়ে প্রেম করেছেন কেট মসের সঙ্গে।

0 comments:

Post a Comment