Last update
Loading...

বন্দুক নিয়েই মেতে থাকত নিকোলাস ক্রুজ

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের স্কুলে গুলিবর্ষণ করে ১৭ জনকে হত্যার দায়ে গ্রেফতার নিকোলাস ক্রুজকে মার্জরি স্টোনম্যান ডগলাস হাইস্কুল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। যেখান থেকে সে গুলি করছিল, সেখান থেকেই পুলিশ তাকে আটক করেছে। তাকে কাছের একটি হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, শৃঙ্খলাজনিত কারণে তাকে স্কুল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল।-খবর রয়টার্স ও বিবিসি অনলাইন। তার আচরণ নিয়ে স্কুল থেকে নানাজনে আপত্তি তুলেছিল। সে অন্য শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দেখাত এবং তার মোবাইল ফোনটি বন্দুকের ছবিতে ভরা থাকত বলে জানিয়েছেন পরিচিতজনরা। তার সাবেক সহপাঠীররা জানিয়েছে, সে অস্থির চিত্তের এক তরুণ এবং বন্দুক ভালোবাসত।
তাকে যখন গ্রেফতার করা হয়, তখন তার কাছে অনেক গুলিভর্তি ম্যাগজিনসহ একটি আধা-স্বয়ংক্রিয় রাইফেল পাওয়া যায়। ডগালাস হাইস্কুলের সিনিয়র শিক্ষার্থী ১৮ বছর বয়সী চাদ উইলিয়ামস জানিয়েছেন, মাধ্যমিক স্কুল থেকেই ক্রুজ বিভিন্ন সমস্যা তৈরি করছিল। ক্রুজ স্কুলের ফায়ার অ্যালার্ম বাজিয়ে দিত আর দিনের পর দিন সে একই কাজ করত বলে জানিয়েছেন তিনি। পরে অষ্টম গ্রেডে ওঠার পর তাকে স্কুল থেকে বহিষ্কার করা হয়। ১৯ বছর বয়সী জিলিয়ান ডেভিস জানান, নবম গ্রেডে থাকার সময় তিনি ক্রুজের সঙ্গে স্কুলের জুনিয়র রিজার্ভ অফিসার ট্রেনিং কোরে (জেআরওটিসি) ছিলেন। ক্রুজকে শান্ত ও লাজুক ছেলে বলে বর্ণনা করেছেন তিনি। তবে ক্রুজ রাগান্বিত হলে পুরোপুরি বদলে যেত বলেও জানিয়েছেন। তিনি জানান, ক্রুজ বন্দুক ও ছুরি নিয়ে অনেক কথা বলত; কিন্তু কেউ তাকে পাত্তা দিত না। গণিতের শিক্ষক জিমগার্ড বলেন, স্কুলের সবাই তাকে খারাপ আচরণের জন্য চিনত। গত বছর সে অন্য শিক্ষার্থীদের ভয় দেখালে তাকে স্কুল ছাড়তে বাধ্য করা হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সে যত পোস্ট দিত, তার সবই ছিল বন্দুক নিয়ে।

0 comments:

Post a Comment