Last update
Loading...

ধন নয় মান নয় একটুখানি বাসা

দর্শক-খরা কাটিয়ে গতকাল শুক্রবার ছুটির দিনে দুপুরের পর থেকে ক্রেতা-দর্শনার্থীর ভিড় বাড়তে থাকে চট্টগ্রামের আবাসন মেলায়। পছন্দের ফ্ল্যাটের খোঁজ জানতে অনেকে এসেছিলেন সপরিবার। বিভিন্ন আবাসন প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা জানান, ছোট বা মাঝারি আকারের ফ্ল্যাটের দিকে ক্রেতাদের ঝোঁক বেশি।  একটি স্টলের সামনে কথা হয় বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জসীম চৌধুরীর সঙ্গে। তিনি জানান, ৫ থেকে ৫৫ লাখ টাকার ফ্ল্যাট খুঁজছেন, কিন্তু তাঁর পছন্দের জায়গায় পাচ্ছেন না।  গত বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামের র‍্যাডিসন ব্লু হোটেলের মেজবান হলে শুরু হয়েছে চার দিনের আবাসন মেলা ‘রিহ্যাব চট্টগ্রাম ফেয়ার ২০১৮ ’। আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) মেলার আয়োজক। গতকাল ছিল মেলার দ্বিতীয় দিন। মেলা চলবে আগামীকাল রোববার পর্যন্ত। প্রতিদিন মেলা সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলে। প্রবেশমূল্য ৫০ টাকা। এবার মেলায় ৪২টি আবাসন প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি সাতটি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং ১০টি নির্মাণ উপকরণ প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। সব মিলিয়ে মেলায় স্টল ৫৯ টি। বিভিন্ন আবাসন প্রতিষ্ঠান ২০০ প্রকল্প নিয়ে এসেছে মেলায়। ছোট ও কম দামের ফ্ল্যাটের খোঁজ পাওয়া গেল স্যানমার প্রপার্টিজের স্টলে। ভাটিয়ারী বিএমএ গেটের পাশে ‘স্যানমার দামিনি’ নামে প্রতিষ্ঠানটির একটি আবাসন প্রকল্পে সর্বনিম্ন ৫০০ বর্গফুটের ফ্ল্যাট রয়েছে। এই ফ্ল্যাটের দাম ২১ লাখ ২১ হাজার ১১১ টাকা। একই প্রকল্পে অবশ্য দেড় হাজার বর্গফুটেরও ফ্ল্যাট রয়েছে। এই প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০২১ সালে। স্যানমারের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আইয়ুব প্রথম আলোকে বলেন, নিম্নমধ্যবিত্তদের জন্য ছোট ফ্ল্যাট তৈরি করেছেন তাঁরা।
এককালীন ১৫শতাংশ টাকা দিয়ে ছোট ফ্ল্যাট বুকিং দিতে পারবেন ক্রেতারা। উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্তদের জন্য নগরের বায়েজিদ এলাকায় ‘স্যানমার গ্রিনপার্কে’ রয়েছে ৬০ লাখ টাকায় ফ্ল্যাট। আবাসন প্রতিষ্ঠান সিএ প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের (সিপিডিএল) বিলাসবহুল ফ্ল্যাটের পাশাপাশি ছোট ও মাঝারি আকারের ফ্ল্যাট রয়েছে। এই প্রতিষ্ঠান ক্রেতাদের জন্য ছোট আকারের ফ্ল্যাট তৈরি করেছে নগরের ফিরিঙ্গিবাজারে। সবচেয়ে ছোট ফ্ল্যাটের আয়তন ৯৫০ বর্গফুট। সবচেয়ে বড় ফ্ল্যাটের আয়তন ২ হাজার ৭০০ বর্গফুটের। সিপিডিএলের হেড অব সেলস জিয়াউল হক খান জানান, তাঁরা মেলায় ১১টি আবাসন প্রকল্প এনেছেন।  এয়ারবেলের কম দামের ফ্ল্যাট রয়েছে কর্নেলহাট ও আগ্রাবাদ ছোটপুলে। কর্নেলহাট এলাকায় ৯৭৮ বর্গফুট এবং ছোটপুলে ৯৫৩ বর্গফুটের ফ্ল্যাট কিনতে ক্রেতাদের ব্যয় করতে হবে ৩৬ লাখ টাকা। এয়ারবেল ডেভেলপমেন্ট টেকনোলজিসের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী মাসুদ আলম বলেন, ৯৫০-১, ৭০৬ বর্গফুট আয়তনের ফ্ল্যাট রয়েছে তাঁদের ছয়টি প্রকল্পে। মেলায় বুকিং দিলেই ছাড় পাবেন ক্রেতারা। আবাসন প্রতিষ্ঠান এপিক নগরের কালামিয়া বাজার এলাকায় ৫০ লাখ টাকায় ফ্ল্যাট দিচ্ছে ক্রেতাদের। সেখানে ১ হাজার ২৭৫ বর্গফুটের ফ্ল্যাট মিলবে।  প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা ফারজানা রুপা বলেন, মধ্যবিত্ত, উচ্চ মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্ত গ্রাহকের কথা মাথায় রেখে আটটি প্রকল্প নির্মাণ করা হচ্ছে। রিহ্যাবের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি আবদুল কৈয়ূম চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, উদ্বোধনী দিনে রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে রাস্তাঘাট ছিল ফাঁকা। দর্শনার্থীও সেভাবে ছিল না। তবে আজ (শুক্রবার) দর্শনার্থীদের জন্য হাঁটা যাচ্ছে না মেলায়।

0 comments:

Post a Comment