Last update
Loading...

‘ব্যানানা’ সুপারহিরো!

নিউইয়র্কের ব্রুকলিনে ১৭ ফেব্রুয়ারি দেখা মিলল একজন সুপারহিরোর! হাতে হলুদ পাকা একটি ব্যানানা (কলা)। খয়েরি প্রিন্টের হাফ প্যান্ট, হাঁটু পর্যন্ত মোজা জড়ানো জুতো, ম্যাগি হাতা কালো টি-শার্ট, ম্যাচিং করে মুখে মাস্কের মতন একটা কাপড়; আর পেছনে সুপারম্যানের মতো গলায় বাঁধা উড়ন্ত উত্তরীয়!
ফ্রাঙ্কলিন অ্যাভিনিউয়ের লোকজন সকাল ৯টার দিকে আবিষ্কার করল, এক বিল্ডিংয়ের ছাদ থেকে আরেক বিল্ডিংয়ের ছাদে লাফিয়ে চলছে রীতিমতো এই ‘ব্যানানা’ সুপারম্যান! লোকজন পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এই লাফানো সুপারহিরোকে (!) অবশেষে থামাল এক বিল্ডিংয়ের ছাদের কার্নিশে। আগুন লাগলে বেরোনোর জরুরি সিঁড়ির ওপরে হাতে ব্যানানা নিয়ে উদ্‌যাপনের ভঙ্গিতে লোকের মুঠোফোনে ছবিতে ‘ব্যানানা সুপারহিরো’ পোজ দিয়ে গেলেন। নিউইয়র্ক পুলিশ (এনওয়াইপিডি) ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর পরও সুপারহিরোকে নামাতে একেবারে গলদঘর্ম যাকে বলে! ধরার চেষ্টা করলে বিল্ডিং থেকে লাফিয়ে আত্মাহুতি (!) দেবেন বলে হুমকি দিচ্ছিলেন ব্যানানা সুপারহিরো। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন, ‘আত্মাহুতি’। প্রায় এক ঘণ্টা বচসার পর নিউইয়র্ক পুলিশের সদস্যরা এই সাক্ষাৎ ‘ক্যালাস’কে নামাতে সমর্থ হলে ততক্ষণে সবাই বুঝে ফেলেছে, আসলে এই ব্যানানা সুপারহিরো রূপী যুবকটির কর্মকাণ্ড ‘মাথায় ছিট ওঠা’ ছাড়া আর কিছুই নয়। অগত্যা নিউইয়র্ক পুলিশ যুবকটিকে নিকটস্থ উডহাল হাসপাতালে ভর্তি করে। মাথায় সুপারহিরো হওয়ার ভূত চাপা এই যুবকের নাম আপাতত জানা যায়নি। এত সব কাণ্ড করে ‘ব্যানানা সুপারহিরো’ অবশেষে কোনো শারীরিক ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই এখন চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

0 comments:

Post a Comment