Last update
Loading...

মেসেঞ্জার কিডস বন্ধের অনুরোধ

অনূর্ধ্ব-১৩ বছর বয়সী শিশুদের জন্য মেসেঞ্জার কিডস নামে একটি মেসেজিং অ্যাপ চালু করেছে ফেসবুক। শিশুদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করতেই অ্যাপটি চালু করে তারা, যেখানে অভিভাবকদের হাতে নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা রাখা হয়। ফেসবুক নিশ্চয়ই ধারণা করেছিল যে, অ্যাপটি সর্বমহলে প্রশংসিত ও গৃহীত হবে। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, এর বিরুদ্ধ মতের মানুষও কম নয়।
শিশুস্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করছেন, এমন শতাধিক বিশেষজ্ঞ মনে করেন, ফেসবুক আসলে কোমলমতি শিশুদের জন্য নয়। তারা চাইছেন, ফেসবুক যেন দ্রুত অ্যাপটি প্রত্যাহার করে নেয়। এজন্য তারা সম্প্রতি মার্ক জাকারবার্গের কাছে একটি খোলা চিঠিও লিখেছেন। চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘মেসেঞ্জার কিডস সম্ভবত প্রথম সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম, যা মূলত স্কুলপড়ুয়া শিশুরা ব্যাপকভাবে ব্যবহার করছে। কিন্তু বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, ডিজিটাল ডিভাইস ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অতিরিক্ত ব্যবহার শিশু ও টিনএজারদের জন্য বেশ ক্ষতিকর। ফলে নতুন অ্যাপটি শিশুদের সুস্থ বিকাশে ব্যাঘাত ঘটাবে বলেই প্রতীয়মান। শিশুরা এখনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের জন্য উপযুক্ত নয়। অনলাইনে সম্পর্ক গড়ে তোলার ক্ষেত্রে কিছু জটিলতা দেখা দেয়। সেগুলো সামাল দেয়ার মতো বয়স এখনো তাদের হয়নি। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়।’ ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলেছে, শিশুদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে তাদের অভিভাবকেরা আরো বেশি নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন। অভিভাবকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই মেসেঞ্জার কিডস অ্যাপটি ডেভেলপ করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে অনলাইন নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিয়েই চালু করা হয়েছে অ্যাপটি।

0 comments:

Post a Comment