Last update
Loading...

ডিম কেন খাবেন by ডা. আলমগীর মতি

ডিম খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দায়।শিশু থেকে শুরু করে বয়োজ্যেষ্ঠ পর্যন্ত সবাই ডিম খেতে খুব পছন্দ করেন। আবার অনেকে রান্নার ঝামেলা এড়াতে রুটির সঙ্গে ডিম পোছ করে খেয়ে থাকেন।শরীর দুর্বল হলে ডাক্তার সকালবেলার নাশতায় ডিম খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। ডিমের মধ্যে প্রোটিন রয়েছে। অন্যান্য প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবারের তুলনায় এর দামও কম। কিন্তু আমাদের মনে কখনো কি প্রশ্ন এসেছে ডিম কেন খাবে? ডিমের মধ্যে কি কি উপকারিতা রয়েছে। যুগান্তর পাঠকদের জন্য থাকছে ডিমের বিষয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।
আসুন জেনে নেই ডিম কেন খাবেন।
অ্যামাইনো অ্যাসিড
ডিম পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ একটি খাবার। ডিমের মধ্যে রয়েছে প্রয়োজনীয় অ্যামাইনো অ্যাসিড। এছাড়া এতে রয়েছে ভিটামিন এ, বি৫, বি১২, বি৬, ডি, ই, কে, ফোলেট, ফসফরাস, সেলিনিয়াম, ক্যালিয়াম ও জিংক। প্রতিটি ডিমের মধ্যে রয়েছে পাঁচ গ্রাম প্রোটিন। তাই বডিবিল্ডার্সরা প্রতিদিন ডিম খান।
কোলিন
বেশির ভাগ খাদ্য তালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণ কোলিন থাকে না। ডিম হচ্ছে এমন একটি খাবার যাতে কোলিন কোষের মেমব্রেন তৈরিতে সাহায্য করে। তাই নিয়মিত খাওয়া ভালো।
অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট
ডিমের মধ্যে রয়েছে জিক্সাথিন ও লুটেইন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। ডিম খাওয়া চোখের জন্য ভালো। ডিম চোখের ছানি প্রতিরোধে করে।
ভালো চর্বি
ডিমের মধ্যে রয়েছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড ও ভালো চর্বি। অনেকে ভাবেন, সব চর্বিই খারাপ। কথাটি সঠিক নয়। স্বাস্থ্যকর চর্বিও রয়েছে। এটি শরীরের জন্য ভালো। অনেক রোগীর ক্ষেত্রে প্রতিদিন ডিম খেতে মানা করা হয় বা ডিমের কুসুম খেতে নিষেধ করা হয়। ডিম তো খাবেনই, তবে প্রতিদিন ডিম খাবেন কি না বা কতটুকু পরিমাণ খাবেন, এ বিষয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
লেখক : হারবাল গবেষক ও চিকিৎসক, মডার্ন হারবাল গ্রুপ

0 comments:

Post a Comment