Last update
Loading...

বিভাগীয় শহর ময়মনসিংহ

২০১৫ সালের ১৩ অক্টোবর যে উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের যাত্রা শুরু হয়েছিল, দুই বছরের ব্যবধানে তা অনেকটা মিইয়ে গেছে। গতকাল প্রথম আলোয় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, বিভাগ ঘোষণার পর বিভাগীয় কমিশনারসহ কয়েকটি বিভাগীয় কার্যালয় সেখানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে রেঞ্জ পুলিশের কার্যালয়, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তর। কিন্তু খাদ্য, শিক্ষা, দুর্নীতি দমন কমিশন, গণগ্রন্থাগার, নগর উন্নয়নসহ ১৪টি গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরের বিভাগীয় অফিস চালু না হওয়া দুর্ভাগ্যজনক। অন্য সব বিভাগীয় শহরের মতো ময়মনসিংহে সিটি করপোরেশন ঘোষণা করা হলেও গেজেট বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি। তাই নির্বাচনও হতে পারছে না। অথচ অনেক আগেই সাবেক ময়মনসিংহ পৌরসভা এবং এর সন্নিহিত ছয়টি ইউনিয়ন পরিষদের মেয়াদ শেষ হয়েছে। এ ছাড়া ব্রহ্মপুত্র নদের উত্তর পারে নতুন শহর প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা নেওয়া হলেও সেটি বাস্তবায়ন সম্ভব হচ্ছে না জমি অধিগ্রহণ-সংক্রান্ত জটিলতার কারণে। এ ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রশাসনের কাছ থেকে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য এসেছে। আমরা মনে করি, সমস্যা যত কঠিনই হোক না কেন, স্থানীয় জনগণকে আস্থায় নিয়ে এর সমাধান করতে হবে। জমির ন্যায্য দাম পাওয়া নিয়ে বাসিন্দাদের মধ্যে যে আশঙ্কা রয়েছে, সেটি দূর করার দায়িত্ব প্রশাসনেরই।
আশার কথা, এ ব্যাপারে ক্ষমতাসীন ও বিরোধী রাজনৈতিক দলের অবস্থান ইতিবাচক। এই দুটি দলের দায়িত্বশীল দুই নেতা প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপকালে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। এ ছাড়া শহরের যানজট সমস্যার স্থায়ী সমাধান খুঁজে বের করতে হলে জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোনা রুটে চলাচলকারী পরিবহনের জন্য বিকল্প সড়ক তৈরি করতে হবে। অধিকাংশ বড় শহরে বিকল্প বাইপাস সড়ক থাকলেও ময়মনসিংহে সেটি নেই। এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ যত দেরি করবে, জনগণের দুর্ভোগ তত প্রলম্বিত হবে। তবে আশার খবর হলো ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ড চালু হয়েছে এবং একজন চেয়ারম্যানও নিয়োগ পেয়েছেন। আশা করা যাচ্ছে, আগামী বছর থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা এই বোর্ডের অধীনে হবে। বিভাগ বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া নিয়ে ময়মনসিংহবাসীর মধ্যে যে হতাশা দেখা দিয়েছে, তা দূর করতে হবে সমস্যাগুলোর সমাধান করেই। আদর্শ নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে হলে সবার আগে নাগরিকদের সুযোগ-সুবিধার দিকে নজর দিতে হবে। উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। আর সিটি করপোরেশন নির্বাচনই হলো তার শ্রেষ্ঠ উপায়। শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের স্মৃতিধন্য ময়মনসিংহ একটি আদর্শ বিভাগীয় শহর হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হোক।

0 comments:

Post a Comment