Last update
Loading...

সারাদিন ছাত্র পড়ান রাতে গাড়ি পোড়ান

অমিত গায়েকোয়াড় ভারতের কর্নাটকের বেলাগাভি ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স (বিআইএমএস) কলেজের প্যাথোলজি বিভাগে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কাজ করেন। অমিত দিনের বেলা ছাত্র পড়ান আর রাতের বেলা গাড়িতে আগুন লাগিয়ে মজা পান। অধ্যাপনার পাশাপাশি গাড়ি পোড়ানোর শখ তার। জানা গেছে, এক সপ্তাহে ২০টি গাড়িতে আগুন দিয়েছেন তিনি। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই তার মাথায় এ অদ্ভুত নেশা চড়ে বসে। প্রতি রাতেই ৩-৪টার দিকে ঘর থেকে বেরিয়ে পড়েন। সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ার ভয়ে হুডি জ্যাকেটে মাথা ঢেকে বেরিয়ে পড়েন। তারপর শুরু হয় তার অগ্নিযজ্ঞ।
ডেইলি সান, আনন্দবাজার। পুলিশ জানিয়েছে, অমিত গায়েকোয়াড় (৩৭) কর্নাটকের কালাবুরাগি জেলার বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি বেলাগাভির সদাশিবনগরে থাকেন। বিআইএমএস কলেজের প্যাথোলজি বিভাগে অধ্যাপনা করেন অমিত। একটি বার্তা সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, গত এক সপ্তাহে ২০টি গাড়ি পুড়িয়েছেন অমিত। আর সবক’টি ঘটনাই ঘটেছে কালাবুরাগি এবং বেলাগাভির আশপাশেই। এ ব্যাপারে পুলিশ জানিয়েছে, জানুয়ারি ১৩, ১৪ এবং ১৫ তারিখে কালাবুরাগিতে নয়টির বেশি গাড়িতে আগুন লাগিয়েছিলেন অমিত। আর ১৭ জানুয়ারি রাতে বেলাগাভির যাদবনগরে একসঙ্গে সাতটি গাড়ি জ্বালিয়ে দেন। সম্প্রতি ফের একটি গাড়িতে আগুন লাগাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন অমিত। পুলিশ জানায়, গাড়ি পোড়ানোর অভিযোগ আসছিল কয়েকদিন ধরেই। রহস্য উদঘাটনের চেষ্টায় ছিল পুলিশ। সেদিন রাতে টহল দেয়ার সময় মাথায় হেলমেট পড়ে একজনকে গাড়িতে উঠতে দেখে সন্দেহ হয়। ওই সময় গাড়িটিতে আগুন লাগাতে যাচ্ছিলেন অমিত। হাতেনাতে ধরে ফেলা হয় তাকে।

0 comments:

Post a Comment