Last update
Loading...

আলোচনায় বসছে দক্ষিণ কোরিয়া ও উত্তর কোরিয়া

দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছে উত্তর কোরিয়া। দুই বছরেরও বেশি সময় পর দুই দেশ আবারো আলোচনায় বসতে যাচ্ছে। আগামী ৯ জানুয়ারি দুই দেশের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। বৈঠকে শীতকালীন অলিম্পিক এবং অন্যান্য বিষয়ে আলোচনা হতে পারে। দক্ষিণ কোরিয়া একত্রীকরণ বিষয়ক মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দু্ই দেশের মধ্যে সই হওয়া বিভিন্ন চুক্তি নিয়েও কথা হবে। সীমান্তের পানমুনজুম গ্রামেই এ বৈঠকের আয়োজনা করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচ্যাং শহরে শীতকালীন অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবে। এই অলিম্পিকের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আমেরিকার যৌথ মহড়া পিছিয়ে দেয়া হবে। সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে ফের হটলাইন চালু করেছে উত্তর কোরিয়া।
প্রায় দুই বছর বন্ধ থাকার পর দেশটির নেতা কিম-জং উনের আদেশে আন্তঃকোরিয়ান যোগাযোগ চ্যানেলটি চালু হয়েছে। উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সংলাপ ও অলিম্পিক গেমসে তাদের খেলোয়াড়দের পাঠানোর আগ্রহ প্রকাশ করার পর হটলাইন চালু করার ঘোষণা দেয় পিয়ংইয়ং। ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে এখনো পর্যন্ত উচ্চপর্যায়ে সংলাপে বসেনি দুই কোরিয়া। দুই কোরিয়ার যৌথ শিল্পাঞ্চল কায়েসং নিয়ে বিরোধের জেরে ২০১৬ সালে হটলাইন বন্ধ করে দেয় উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়া আভাস দিয়েছে, অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণকে স্বাগত জানানো হবে। এর আগে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন উত্তেজনা প্রশমনের সুরে কথা বলেন এবং দুই কোরিয়ার স্থবির সম্পর্ক গতিশীল করার ইঙ্গিত দেন। উন বলেন, খেলায় অংশ নেওয়ার মাধ্যমে ‘ঐক্য প্রদর্শনের ভালো সুযোগ পাবে উত্তর কোরিয়ার জনগণ।’ কিম জং-উনের মন্তব্যের পর দক্ষিণ কোরিয়া উচ্চপর্যায়ে সংলাপের প্রস্তাব দেয় এবং প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইন বলেন, সম্পর্কোন্নয়নের জন্য এটি ‘বিশাল সুযোগ’। তবে উচ্চপর্যায়ে সংলাপে বসার বিষয়ে উত্তর কোরিয়া এখনো পরিষ্কার মতামত দেয়নি। কিন্তু হটলাইনে যোগাযোগের মাধ্যমে প্রাথমিক আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছে তারা।

0 comments:

Post a Comment