Last update
Loading...

যুক্তরাষ্ট্রকে চরম হুমকি ইরানের

বিচার বিভাগের প্রধানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র বিপদসীমা অতিক্রম করেছে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে ইরান। গত সপ্তাহে আয়াতুল্লাহ সাদেক আমেলি-লারিজানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ওয়াশিংটন। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, এই পদক্ষেপের পাল্টা ব্যবস্থা নেবে তেহরান। তবে ঠিক কী ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে সে ব্যাপারে তিনি কিছু বলেননি। একই সাথে ছয় বিশ্ব শক্তির সাথে সম্পাদিক পারমাণবিক চুক্তিতে কোনো পরিবর্তন আনার বিষয়টিও প্রত্যাখ্যান করেছে ইরান।
ইতঃপূর্বে অনেকবার বাতিলের হুমকি দেয়া ডোনাল্ড ট্রাম্প গত শুক্রবার বলেছেন, তিনি শেষবারের মতো ইরান চুক্তি বহাল রাখছেন। তিনি বলেছেন, চুক্তি ‘ভয়াবহ ত্রুটিগুলো’ সংশোধনের জন্য তিনি শেষ সুযোগ দিচ্ছেন। তবে একই দিন ১৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইরানে বন্দীদের নির্যাতন ও তাদের সাথে অমানবিক আচরণের জন্য দায়ী দেশটির বিচার বিভাগের প্রধান আয়াতুল্লাহ সাদেক আমেলি-লারিজানির। এ মাসের শুরুতে সরকার বিরোধী বিক্ষোভের সময় তিনি দাঙ্গাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এক বিবৃতিতে ইরান বলেছেন, ‘ট্রাম্প সরকারের এই পদক্ষেপ সকল বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। এটি স্পষ্টতই আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। ইসলামিক প্রজাতন্ত্রর কঠোর প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে এর জবাব দেবে।’

0 comments:

Post a Comment