Last update
Loading...

লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট গাদ্দাফিপুত্র সাইফ!

লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে
প্রার্থী হবেন গাদ্দাফিপুত্র সাইফ
লিবিয়ার আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হবেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল-ইসলাম গাদ্দাফি। গাদ্দাফি পরিবারের মুখপাত্র বাসেম আল-হাশিমী আল-সোল গত রোববার মিসরীয় গণমাধ্যম ইজিপ্ট টুডেকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২০১৮ সালে। গাদ্দাফির ছেলের প্রতি সমর্থন রয়েছে লিবিয়ার প্রধান প্রধান উপজাতির। লিবিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা আনায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ সাইফ।
২০১১ সালে ন্যাটোর সমর্থনে বিদ্রোহীরা লিবিয়ার সাবেক নেতা গাদ্দাফিকে নৃশংসভাবে হত্যা করে। এ ঘটনার তিন মাস পর নভেম্বরে নাইজারে পালিয়ে যাওয়ার সময় মরুভূমি থেকে সাইফকে আটক করে একটি বিদ্রোহী দল। পরে আটক অবস্থার ছবি প্রকাশ হলে দেখা যায়, তার হাতের কয়েকটি আঙুল নেই। সহিংসতা উসকে দেয়া ও গাদ্দাফিবিরোধী প্রতিবাদকারীদের হত্যা করার অভিযোগে চার বছর পর বিচারে ৩০ সহযোগীসহ তাকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড দেন ত্রিপলির একটি আদালত। কিন্তু জিনতানের ওই বিদ্রোহী বাহিনী তাকে কখনোই ত্রিপলি কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেনি। মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালত সাইফকে ফেরারি ঘোষণা করেছেন। সাইফ আল-ইসলামের বয়স ৪৪ বছর। ২০০৮ সালে লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকস থেকে তিনি পিএইচডি অর্জন করেছেন বলে জানা যায়। ২০০০ সালের পর পশ্চিমা সরকারগুলোর সাথে সম্পর্ক স্থাপনে সাইফ মূল ভূমিকা পালন করেছিলেন।

0 comments:

Post a Comment