Last update
Loading...

উড়ল সবচেয়ে বড় উভচর বিমান

বিশ্বের সবচেয়ে বড় উভচর বিমানের সফল উড্ডয়ন ঘটাল চীন। মিলিটারিতে ব্যবহারের উদ্দেশ্যে নির্মিত এজি৬০০ মডেলের বিমানটি প্রায় এক ঘণ্টাব্যাপী পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন শেষে সফলভাবেই অবতরণ করে। চীনের দক্ষিণাংশের গুয়াংডং প্রদেশের ঝুহাই বিমানবন্দর থেকে রোববার চারটি টার্বোপ্রপ ইঞ্জিনের বিমানটির সফল পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন ঘটানো হয়েছে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানা গেছে। এই বিমানটির পোশাকি নাম কুনলং। ৫০ জন আরোহী নিয়ে প্রায় ১২ ঘণ্টা আকাশে ভেসে থাকতে পারে এ বিমানটি। পূর্বে বিভিন্ন সমরাস্ত্র বহন ও মিলিটারি কাজে ব্যবহার হলেও আধুনিকভাবে নির্মিত এ বিমানটি চীনের দক্ষিণ সাগর পাহারায় নিয়োজিত করা হতে পারে বলে দেশটির সংবাদ মাধ্যম শিনহুয়ার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে। একে আপাতত সমুদ্র, দ্বীপ ও ডুবো পাহাড়ের রক্ষাকর্তা হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে। বিমানটির ডানার দৈর্ঘ্য প্রায় ১২৭ ফুট ও ওজন ৫৩ দশমিক ৫ টন। এটি তৈরিতে ৮ বছর সময় লেগেছে। তৈরির পরপরই প্রায় ১৭টি বিমান বিক্রির প্রস্তাব পেয়েছে নির্মাণকারী সংস্থা। ১৯৪৭ সালে প্রথম নির্মিত উভচর বিমানটি উড্ডয়নে আলোর মুখ দেখেনি।
মাত্র ২৬ সেকেন্ড ওড়ার পরপরই বিধ্বস্ত হয়। বিধ্বস্তাংশগুলো জাদুঘরে সংরক্ষিত আছে। চীনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি প্রথম উভচর এই বিমানের প্রধান ডিজাইনার হুয়াং লিংকাই বলেন, ‘এ ধরনের বিমান তৈরির ক্ষেত্রে চীনের একটি বড় সফলতা। কেননা বিশ্বের হাতে গোনা মাত্র কয়েকটি দেশের এ ধরনের বিশাল আকারের উভচর বিমান তৈরির সক্ষমতা রয়েছে।’ বিমানটির প্রস্তুতকারক রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রি কর্পোরেশন অব চায়না (এভিআইসি) জানায়, বিমানটির কাঠামো ৩৯ দশমিক ৬ মিটার এবং এটির পাখার দৈর্ঘ্য ৩৮ দশমিক ৮ মিটার। এভিআইসি সূত্র জানায়, বিমানটির সর্বোচ্চ ধারণ ক্ষমতা ৫৩ দশমিক ৫ টন। এটি প্রতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৫শ’ কিলোমিটার গতিতে চলতে পারে। বিমানটি একটানা ১২ ঘণ্টা উড়তে সক্ষম। এটি বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় উভচর বিমান বলে ধারণা করা হচ্ছে।

0 comments:

Post a Comment