Last update
Loading...

কেরানীগঞ্জে পুলিশ সোর্সকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

কেরানীগঞ্জে সুবেল (২৫) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার ভোরে বন্দডাকপাড়া জোড়াপুকুর এলাকায় বাসার সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে স্বজন ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। স্বজনদের দাবি, নিহত সুবেল পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতেন। নিহতের বড় ভাই রুবেল জানান, রোববার রাতে খাবার খেয়ে বাসা থেকে বের হয় সুবেল। সারা রাত বাসায় ফেরেনি। ভোরের দিকে লোকজনের চিৎকার শুনে বাসার সামনে গিয়ে দেখেন সুবেল রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। কে বা কারা তাকে রক্তাক্ত জখম করে বাসার সামনে রেখে গেছে। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়দের সহায়তায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক সুবেলকে মৃত ঘোষণা করেন।
তিনি আরও জানান, সুবেল অবিবাহিত ছিল। রিকশা-ভ্যান চালাত। মাঝে মাঝে পুলিশের সোর্স হিসেবেও কাজ করত। স্থানীয় অনেক মাদকসেবীকে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দিয়েছে সুবেল। এ কারণে কেউ ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে হত্যা করতে পারে বলে তার ধারণা। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই শফিউল আজম জানান, নিহতের গ্রামের বাড়ি মাদারীপুরের রাজৈর থানা এলাকায়। বাবার নাম মৃত রউফ হাওলাদার। বন্দডাকপাড়া এলাকায় সুবেলের বড় ভাই রুবেল বাসা ভাড়া নিয়ে পরিবারসহ থাকেন। তাদের সঙ্গেই থাকত সুবেল। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যোবায়ের বলেন, নিহত ওই যুবক মাদকসেবী ছিল। মাদক সেবন করে রাতবিরাতে ঘোরাঘুরি করত বলে জানতে পেরেছি। তবে হত্যাকাণ্ডের সঠিক কারণ উদ্ঘাটনে পুলিশ তদন্ত করছে।

0 comments:

Post a Comment