Last update
Loading...

গাজীপুরে দুটি সেতু ঝুঁকিপূর্ণ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার লতিফপুর এলাকায় ঘাটাখালী নদীর ওপর নির্মিত দুটি সেতুই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকলেও তা মেরামতে কারও কোনো মাথাব্যথা আছে বলে মনে হয় না।মঙ্গলবার প্রথম আলোর খবরে প্রকাশ, ঘাটাখালী নদীর ওপর পাশাপাশি নির্মিত দুটি সেতুর একটি আরসিসি ঢালাইয়ে নির্মিত। অন্যটি ইস্পাতের বেইলি সেতু। সেতু দুটির ওপর দিয়ে প্রতিদিন প্রচুর যানবাহন চলাচল করে। বেইলি সেতুর বেশ কয়েকটি প্লেট উঠে গেছে। দুবার প্লেটের ফাঁকা অংশে ট্রাকের চাকা ঢুকে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। প্লেটগুলো ঠিক করা হলেও আবার উঠে যায়। আর ইস্পাত সেতুর পশ্চিম অংশের মাঝখানে ফাঁকা হয়ে গেছে। আগে একবার এই ফাঁকা অংশের ওপর ইস্পাত বসিয়ে মেরামত করা হয়েছিল কিন্তু যানবাহনের চাপে আবার সেটা ভেঙে গেছে।
দুটি সেতুরই রেলিং জায়গায় জায়গায় ভেঙে গেছে। যেকোনো সময় বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। আর এখন শুধু বেইলি সেতুটি জোড়াতালি দিয়ে মেরামত করা হচ্ছে। দু-দুটি সেতু ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে অথচ তা মেরামতে কারও কোনো উদ্যোগ না থাকাটা দুঃখজনক। সেতু নির্মাণ বা মেরামতের দায়িত্ব সড়ক ও জনপথ বিভাগের। তাদের টনক নড়বে কবে? স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনই-বা কী করছে? তারা সক্রিয় ও দায়িত্বশীল না হলে এ ধরনের সমস্যার সমাধান করা যায় না। ফলে তাদের উদ্যোগী ভূমিকা জরুরি। আর এভাবে জোড়াতালি দিয়ে সেতু মেরামত মানে অর্থ ও সময়ের অপচয়। প্রথম আলোর খবর অনুযায়ী প্রায় ৭০ বছর আগে আরসিসি সেতুটি নির্মিত হয়। আর বেইলি সেতুটি নির্মিত হয়েছে ২৫ বছর আগে। দুটিই যথেষ্ট পুরোনো হয়েছে। এভাবে মেরামত না করে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উচিত এখানে নতুন করে সেতু নির্মাণ করা। গাজীপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের সেকশন অফিসার বশির আহম্মেদ বলেছেন, প্রকল্প গ্রহণ করা হলে নতুন করে সেতু নির্মাণ করা হবে। আমরা আশা করব, ঘাটাখালী নদীর ওপর দ্রুত সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

0 comments:

Post a Comment