Last update
Loading...

ভেনেজুয়েলায় নির্বাচনে বিরোধী দল নিষিদ্ধ

ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলা মাদুরো বলেছেন, আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দেশটির প্রধান বিরোধী দলগুলো অংশ নিতে পারবে না। কারণ তারা রোববারের মেয়র নির্বাচনে অংশ নেয়নি। ক্ষমতা আরও পাকাপোক্ত করতে এটি তাঁর আরেকটি পদক্ষেপ বলে মনে করা হচ্ছে। ভোটের পর মাদুরো বলেন, ভেনেজুয়েলার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কেবল ওই দলগুলো অংশ নিতে পারবে, যারা রোববারের মেয়র নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল। অন্য দলগুলো আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নিষিদ্ধ থাকবে। তিনি বলেন, বিরোধী দলগুলো মেয়র নির্বাচন বয়কট করে রাজনৈতিক মানচিত্র থেকে ‘গায়েব’ হয়ে গেছে। অন্যতম বিরোধী দল জাস্টিস ফার্স্ট, পপুলার উইল ও ডেমোক্রেটিক অ্যাকশন মেয়র নির্বাচন বয়কটের ঘোষণা দিয়েছিল গত অক্টোবরে। তাদের অভিযোগ, নির্বাচনের পদ্ধতি পক্ষপাতদুষ্ট এবং তা কেবল মাদুরোর স্বৈরশাসনকেই আরও দৃঢ় করবে। ৩৩৫টি মেয়র নির্বাচনের মধ্যে ৩০০টিতে জয় পেয়েছে মাদুরোর দল। রোববারের নির্বাচনে ৪৭ শতাংশ ভোট পড়েছে। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা। বিশ্লেষকদের ধারণা, ফল নিজের পক্ষে নিতে নির্বাচন এগিয়ে আনতে পারেন মাদুরো। মাদুরোর দাবি, তিনি জাতীয় সাংবিধানিক পরিষদের আলোকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। গত আগস্টে গঠিত এই পরিষদে মাদুরোর দল সংখ্যাগরিষ্ঠ। ফলে তারা নিজেদের মতো করে নির্বাচনের নীতিমালা পরিবর্তন করতে পারে। এর মাধ্যমে মাদুরো নিজের ক্ষমতা আরও পাকাপোক্ত করতে চাইছেন বলে বিরোধী দলগুলোর অভিযোগ। বেশ কয়েক বছর ধরে ভেনেজুয়েলায় অর্থনৈতিক মন্দা যাচ্ছে। বিভিন্ন রাজনীতিবিদকে বন্দী করা হয়েছে। এই বছরের প্রথম দিকে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে ভেনেজুয়েলা। মাদুরো নতুন সংবিধান তৈরির প্রস্তাব দেওয়ার পর বিক্ষোভ শুরু হয়। সংঘর্ষে বহু লোকের প্রাণহানি হয়।

0 comments:

Post a Comment