Last update
Loading...

বাড়ির বেইজমেন্ট থেকে ধনকুবের ও তার স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

কানাডার এক শীর্ষ ধনাঢ্য ব্যবসায়ী ও তার স্ত্রীকে তাদের নিজ বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। তাদের মৃত্যুকে ‘রহস্যজনক’ বলে বর্ণনা করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার টরন্টোতে নিজেদের বাড়ির বেইজমেন্টে ব্যারি শেরম্যান ও তার স্ত্রী হানির লাশ পাওয়া যায়। বিশ্বজুড়ে ‘জেনেরিক’ ওষুধ বিক্রয়কারী কোম্পানি অ্যাপোটেক্সের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ব্যারি কানাডার সবচেয়ে ধনাঢ্য ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন। জনসেবক বা দাতা হিসেবেও তার খ্যাতি ছিল। ব্যারি ও তার স্ত্রীর মৃত্যুর বিষয়ে পুলিশ খুব বেশি তথ্য দেয়নি, তারা লাশের পরিচয়ও নিশ্চিত করেনি। ঘটনায় স্তম্ভিত বন্ধু ও কর্মকর্তারা পরে ব্যবসায়ী ও তার স্ত্রীর নাম জানায়। কানাডার অন্টারিও প্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী এরিক হসকিনস টুইটারে বলেন, ‘কথা হারিয়ে ফেলছি। আমার প্রিয়প্রন্ধু ব্যারি ও তার স্ত্রী হানিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। তারা ছিলেন চমৎকার মানুষ, অসাধারণ দাতা এবং স্বাস্থ্যসেবায় অনন্য নেতা’। পুলিশের মুখপাত্র পুলিশের কনস্টেবল ডেভিড হপকিনস জানান, শুক্রবার বিকেলের আগে ব্যারির বাড়ি থেকে ইমার্জেন্সি সার্ভিসে ফোন দেয়া হয়েছিল। তাদের মৃত্যুর ঘটনাটি সন্দেহের সৃষ্টি করছে এবং আমরা সেভাবেই ব্যবস্থা নিচ্ছি।’ ফোর্বসের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ব্যারির ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ ছিল প্রায় ৩২০ কোটি ডলার। তিনি ১৯৭৪ সালে অ্যাপোটেক্স ইনকরপোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন; এটি এখন বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও তার স্ত্রীর মৃত্যুকে গভীর শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে অ্যাপোটেক্স। ব্যারি-হানি দম্পতির চার সন্তান আছে।

0 comments:

Post a Comment