Last update
Loading...

নারীদের বিমানে উঠতে বাধা, এমিরেটসকে তিউনিসিয়ার কড়া জবাব!

তিউনিসিয়ার কিছু নারীকে বিমানে উঠতে না দেয়ার কারণে দেশটির কর্তৃপক্ষ দুবাই-ভিত্তিক এয়ারলাইন্স এমিরেটসকে তিউনিসে অবতরণ করতে দেয়নি। তিউনিসিয়ার কিছু নারীকে বিমানে উঠতে না দেয়ার বিষয়টি নিয়ে দেশটির ভেতরে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছিল। মানবাধিকার সংস্থাগুলো বিষয়টিকে 'বৈষম্যমূলক' হিসেবে আখ্যা দিয়েছে।
তিউনিসিয়ার ট্রান্সপোর্ট মন্ত্রণালয় বলছে, এমিরেটস এয়ারলাইন্স যতক্ষণ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক আইন মেনে ফ্লাইট পরিচালনা করবে না ততক্ষণ পর্যন্ত তাদের উপর এ নিষেধাজ্ঞা থাকবে। তবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে নিরাপত্তা সংক্রান্ত তথ্য পেতে দেরি হওয়ায় এ পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে। টুইটারে এক বার্তায় তিনি বলেন, "তিউনিসিয়ার নারীদের আমরা অনেক মূল্যায়ন এবং সম্মান করি।" তিউনিসিয়ার স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, দুবাই-গামী তিউনিসিয়ার নারীদের এমিরেটসের ফ্লাইটে উঠতে দেয়া হয়নি। এ ঘটনা কয়েকদিন ধরে ঘটেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে কয়েকজন নারী জানিয়েছেন, তাদের যাত্রা বিলম্ব হয়েছে এবং তাদের ভিসা আরো পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন আছে বলে জানানো হয়েছে। ২০১১ সালে তিউনিসিয়ার বিপ্লবের পর সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাথে দেশটি সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করছে।

0 comments:

Post a Comment