Last update
Loading...

বাহরাইনি দলের ইসরাইল সফর ‘লজ্জাজনক’

জেরুজালেমের ব্যাপারে মার্কিন সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্কের মধ্যে বাহরাইনের একটি প্রতিনিধি দলের ইসরাইল সফরের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে। তবে প্রতিনিধি দলটি সোমবার এক বিবৃতিতে নিজেদের এ সফরের পক্ষে সাফাই গেয়ে বলেছে, সহনশীলতার বার্তা দিতেই তাদের এ সফর। হামাস রোববার এক বিবৃতিতে বলে, ইহুদিবাদী ইসরাইল যখন ফিলিস্তিনি জাতির বিরুদ্ধে দমন-নিপীড়ন চালাচ্ছে এবং মুসলমানদের পবিত্র স্থানের অবমাননা করছে তখন বাহরাইনের এ সফর মারাত্মক অপরাধ। বাহরাইনের এই অপরাধমূলক পদক্ষেপের ফলে ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর গণহত্যা ও নির্যাতন তীব্র করতে ইহুদিবাদী ইসরাইল উৎসাহ পাবে। খবর আলজাজিরার। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, মুসলিম দেশগুলোর উচিত তেলআবিবের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন না করে সন্ত্রাসবাদ ও বর্ণবাদের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ইহুদিবাদী ইসরাইলের ওপর চতুর্মুখী চাপ সৃষ্টি করা। কিছু আরব দেশের পক্ষ থেকে দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগ অবিলম্বে বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে হামাসের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আরব দেশগুলোর উচিত ফিলিস্তিনিদের হারানো অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য সর্বশক্তি নিয়োগ করা। কথিত শান্তির বার্তা নিয়ে বাহরাইন থেকে প্রতিনিধি দলটি গত রোববার চার দিনের সফরে ইহুদিবাদী ইসরাইলে যায়। বাহরাইনের বাদশাহ হামাদ বিন ঈসা আল-খলিফার একটি বিশেষ বার্তা বহন করছে এ প্রতিনিধি দল। ইসরাইলের সঙ্গে আরব অঞ্চলের বহু দেশই যে উষ্ণ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছে বাহরাইনের প্রতিনিধি দলের এ সফরের মধ্য দিয়ে তারই নতুন উদাহরণ সৃষ্টি হল। দেশটির এক সাংবাদিক ও ব্লগার হোসেইন ইউসুফ বলেন, ‘বাহরাইন কর্তৃপক্ষের সমর্থনে প্রতিনিধি দলটি বেশ কিছু কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। তবে তাদের এই ইসরাইল সফর একটি অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড এবং তারও বেশি।’ বাহরাইনের আরেক ব্লগার বাসমাহ আল কাসাব লিখেছেন, ‘অধিকৃত পূর্ব জালোম প্রতিনিধি দলটির সফর লজ্জাজনক ও অনৈতিক। তারা বাহরাইনি জনগণের প্রতিনিধিত্ব করছেন না।’

0 comments:

Post a Comment