Last update
Loading...

সরব শ্রাবণ্য by মারুফ কিবরিয়া

শ্রাবণ্য তৌহিদা। টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় এখন আলোচিতদের তালিকায়। পার করছেন ব্যস্ত সময়। পাশাপাশি তিনি পেশায় একজন পুরোদস্তুর চিকিৎসকও। কুড়িগ্রাম শহরে জন্ম এবং বেড়ে ওঠা এ মেয়েটি মিডিয়ায় বরাবরই কোনো না কোনো নিত্যনতুন কাজ নিয়ে হাজির হন। আর সেটা বেশিরভাগই উপস্থাপনা কিংবা মডেলিংয়ের মাধ্যমে। রোববার থেকে এনটিভিতে নতুন একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনার কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন শ্রাবণ্য। এর নাম ‘রঙিন পাতা’। তার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটিতে আড্ডা দিতে আসবেন দেশখ্যাত তারকা ও সে সঙ্গে একজন করে বিনোদন সাংবাদিক। কাজী মোহাম্মদ মোস্তফার পরিকল্পনা ও প্রযোজনায় অনুষ্ঠানটি প্রসঙ্গে শ্রাবণ্য বলেন, এটি একেবারেই নতুন ঘরানার শো। আমাদের দেশের পত্রিকাগুলোর বিনোদন পাতা নিয়ে সবার এক ধরনের বিশেষ আগ্রহ কাজ করে। সে জায়গা থেকে এর নেপথ্যে যারা কাজ করেন তাদের একজনকে প্রতি পর্বে অতিথি হিসেবে রাখা হবে অনুষ্ঠানটিতে। আমার কাছে ভীষণ ভালো লেগেছে কাজটি করে। আশা করছি দর্শকের উপভোগ্য হবে। এনটিভিতে প্রচার শুরু হতে যাওয়া ‘রঙিন পাতা’ ছাড়া শ্রাবণ্য জানালেন বর্তমানে ‘রক কার্নিভাল’ ও ‘এশিয়ান কিচেন’ নামের দুটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছেন নিয়মিত। সামনে একুশে টিভিতে আরো একটি শোতে কাজ করার কথা রয়েছে তার। ব্যস্ততা প্রসঙ্গে শ্রাবণ্য বলেন, এফসিপিএসের পরীক্ষার জন্য জোর প্রস্তুতি নিচ্ছি। তাই কাজ সেভাবে করছি না। তাছাড়া হসপিটালে সময় দেয়া ও পড়াশোনাটা চালিয়ে যেতে হচ্ছে বলে এমনিতেই বেছে ভালো মানের কোনো কাজ হলে করি। শৈশব থেকেই বাবা-মায়ের স্বপ্ন মেয়েকে ডাক্তার বানাবেন। বড় হয়ে মেয়ে ডাক্তার হলেন ঠিকই, আর সেই সঙ্গে তার নিজের পছন্দের মিডিয়ায় বিচরণও চালিয়ে যাচ্ছেন। শ্রাবণ্য ছোটবেলা থেকেই ছিলেন ভালো ছাত্রী। সেই সময় থেকেই নাচ, গান এবং আবৃত্তির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ক্লাস ফাইভে পড়াকালীন প্রথম তাৎক্ষণিক অভিনয় করেছিলেন। সে স্মৃতিটা আজও অমলিন তার কাছে। উপস্থাপনার শুরুটা ২০১২ সালে। চ্যানেল টুয়েন্টি ফোরের ‘লাইফ স্টাইল ২৪’ এবং ‘স্টুডিও ২৪’ নামে দুটি লাইভ অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছিলেন। এর কিছুদিন পর তিনি চ্যানেল নাইনে ‘ট্রাভেলারস স্টোরি’ নামে একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন। এছাড়া এনটিভির ‘মিউজিক ইউফোনি’, আরটিভির ‘মিউজিক স্টেশন’, এসএ টিভির ‘ওয়েডিং স্টোরি’ এবং জিটিভির ‘ক্রিকেট ম্যানিয়া’ অনুষ্ঠানগুলো উপস্থাপনা করে প্রশংসিত হন। পাশাপাশি কয়েকটি ব্র্যান্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করেছেন শ্রাবণ্য। এর মধ্যে রয়েছে রবি, ওটু, নাগরদোলাসহ অন্যান্য। বেশকিছু বিজ্ঞাপনচিত্রেও কাজ করেছেন তিনি। ২০১৩ সালে গ্রীন ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হওয়ার মধ্য দিয়ে মডেলিংয়ে পথচলা শুরু তার। এর পর এক এক করে মডেল হয়েছেন ‘বার্জার পেইন্ট’, ‘আর এফ এল কুকারহুড’, ‘প্রাণ জুস’, ‘ইস্পাহানি চা’, ‘টিউলিপ ইমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিক’সহ বেশকিছু বিজ্ঞাপনচিত্রে। সিনেমায় অভিনয়ের অফার প্রতিনিয়তই পাচ্ছেন। তবে বাণিজ্যিক ঘরানার সিনেমায় কখনই অভিনয় করতে চান না শ্রাবণ্য। উপস্থাপনা, ডাক্তারি, মডেলিং, অভিনয় এতকিছু সামলান কিভাবে জানতে চাইলে শ্রাবণ্য বলেন, ইচ্ছে থাকলে যেকোনো কিছু করা সম্ভব। উপস্থাপনাটা ভীষণ এনজয় করি। পেশাগত কাজটা আমি সবার ওপরে গুরুত্ব দিই। শ্রাবণ্য অভিনীত বেশ কিছু নাটক দর্শকপ্রিয় হয়েছে এরই মধ্যে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘এরোনিয়াম’, ‘ছায়া সত্তা’, ‘কোকিল’, কাকতালীয়’ ইত্যাদি।
অসংখ্য ফ্যাশন ম্যাগাজিনের কাভার মডেল হয়েছেন এ পর্দাকন্যা। বেশকিছু ব্র্যান্ডের বিলবোর্ডেরও মডেল হয়েছেন তিনি। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি মিডিয়ায় কাজ করছেন শ্রাবণ্য। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী জানতে চাইলে বলেন, মিডিয়ার কাজটাকে দারুণ এনজয় করি। আর চিকিৎসা সেবা হলো আমার প্রধান কাজ। তবে দুটোই নিয়মিত করে যাবো। রোগীর সেবা দেয়ার পাশাপাশি মিডিয়াতেও ভালো কিছু করে যেতে চাই।

0 comments:

Post a Comment