Last update
Loading...

ফেনীতে 'বন্দুকযুদ্ধে' একরাম হত্যা মামলার আসামি নিহত

ফেনীর বহুল আলোচিত ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান একরাম হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি মো. সোহেল (রুটি সোহেল) র‌্যাবের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোর ৫টার দিকে শহরের বিরিঞ্চি এলাকায় এ 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা ঘটে। র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্পের অধিনায়ক সাফায়াত জামিল ফাহিম জানান, ভোরে বিরিঞ্চি এলাকায় সামসুল হক চেয়ারম্যান বাড়িতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে শীর্ষ সন্ত্রাসি রুটি সোহেলকে আটকের চেষ্টা করে র‌্যাব। এসময় টের পেয়ে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে সোহেল ও তার সহযোগীরা গুলি ছুঁড়লে র‌্যাবও পালটা গুলি চালায়। এ সময় রুটি সোহেল গুলিবিদ্ধ হয়। আহত অবস্থায় তাকে ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি বিদেশি রিভলবার ও গুলি উদ্ধার করা হয়। ফেনী মডেল থানার ওসি রাশেদ খান চৌধুরী জানান, নিহত সোহেল ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একরাতুল হক একরাম হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত পাঁচ নম্বর আসামি। এছাড়াও তিনি  বিরিঞ্চি এলাকার ব্যবসায়ী আবু সাঈদ হত্যা, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, প্রতিপক্ষের ওপর হামলা, মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন ঘটনায় মোট ছয়টি মামলা ও বহু অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। গত একুশে মার্চ তিনি জামিনে মুক্ত হয়ে পলাতক ছিলেন। তিনি জানান, রুটি সোহেল জেলার অপরাধীদের তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী। একরাম চেয়ারম্যান হতা মামলায় জামিনে বেরিয়ে শহর জুড়ে বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিলেন। সকালে ফেনী সদর হাসপাতাল থেকে সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে মৃতদেহ বুঝে নিয়ে পরবর্তি কার্যক্রম শুরু করে বলে জানান ওসি।

0 comments:

Post a Comment