Last update
Loading...

ইয়েমেনে কলেরা আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখ ছাড়িয়েছে

ইয়েমেনে কলেরা রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৩ লাখ ছাড়িয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রাণ হারিয়েছেন ১ হাজার ৭০০ জনেরও বেশি। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (ডব্লিউএইচও) জুনের শেষের দিকে জানায় আগস্টের শেষের দিকে কলেরায় আক্রান্ত  রোগীর সংখ্যা ৩ লাখ অতিক্রম করতে পারে। ডব্লিউএইচও’র অনুমানের চেয়েও দ্রুতগতিতে অর্থাৎ প্রায় এক মাস আগে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ অতিক্রম করেছে। আন্তর্জাতিক ত্রাণসংস্থা রেডক্রসের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা। খবরে বলা হয়, ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অফ দ্য রেডক্রস (আইসিআরসি) এক টুইটার পোস্টে বলেছে, ‘আজকে, তিন লাখের বেশি মানুষ কলেরায় আক্রান্ত বলে ধারণা করা হচ্ছে।’ আইসিআরসি’র মুখপাত্র ইয়োলান্ডা জ্যাকমেত বলেন, ‘কলেরায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১৭০০ মানুষেরও বেশি।’ দশদিনে কলেরায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২০০ মানুষ। আইসিআরসি’র আঞ্চলিক পরিচালক রবার্ট মার্দিনি বলেন, ‘প্রতিদিন রাজধানী সানা ও অন্যান্য অঞ্চল মিলে প্রায় ৭ হাজার মানুষ কলেরায় আক্রান্ত হওয়ার খবর আসছে।’  ডব্লিউএইচও বলেছে, জুলাইয়ের ৭ তারিখের মধ্যে কলেরা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ২ লাখ ৯৭ হাজার ৪৩৮ জন ও এ রোগে আক্রান্ত মৃতের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৭০৬ জন। সংস্থাটি আরো বলেছে, সৌদি সমর্থিত ইয়েমেন সরকার ও হুতি বিদ্রোহীদের মধ্যে দু’বছর চলা যুদ্ধ ইয়েমেনকে কলেরা ছড়ানোর যথোপযুক্ত অঞ্চলে পরিণত করেছে। সাধারণত কলেরা নিরাময়যোগ্য হলেও ইয়েমেনের পরিস্থিতিতে তা কঠিন হয়ে উঠছে। যুদ্ধে দেশটির বেশিরভাগ স্বাস্থ্য অবকাঠামোই ভেঙে গেছে। এছাড়া দেখা দিয়েছে খাদ্য সংকটও।

0 comments:

Post a Comment