Last update
Loading...

জাতিসংঘের সহায়তা চাইল কাতার

মধ্যপ্রাচ্যের কূটনৈতিক সংকট সমাধানে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কাতার। কাতারের ওপর আরোপ করা সৌদি জোটের অবরোধ তুলে নিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল থানি। শুক্রবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘের কাতারি মিশনে নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। এ সময় কাতারের ওপর থেকে অবরোধ তুলে নেয়ার জন্য জাতিসংঘকে সরাসরি কথা বলার আহ্বান জানান তিনি। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আল থানি বলেন, ‘সংকটের ইতি টানার প্রচেষ্টায় একটা আন্তরিক সংলাপের আয়োজন করতে সব পক্ষকে উৎসাহিত করার চেষ্টা করছে কাতার।’ খবর আল-জাজিরার। এদিকে কাতারের বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল ট্রাম্প ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোগানের মধ্যে ফোনে কথা হয়েছে। শুক্রবার এ দুই নেতার মধ্যে ফোনালাপ হয়। টেলিফোন আলাপে কাতার সংকট সমাধান হওয়া উচিত বলে মতপ্রকাশ করেন তারা। আলোচনায় সংকটের কারণে ক্রমবর্ধমান আঞ্চলিক উদ্বেগের বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছে। এছাড়া আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নিয়েও তারা আলাপ করেন। গত মাসের প্রথম দিকে কাতারের সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে সৌদি আরব, মিসর, আরব আমিরাত, বাহরাইন। এ ঘটনার প্রথম থেকেই তুরস্ক কাতারের পক্ষে অবস্থান নিয়ে সংকট সমাধানে কাজ করে যাচ্ছে। এদিকে আলজাজিরা টিভি নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেয়ার দাবি অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ। শুক্রবার জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন এক বিবৃতিতে বলেছে, সৌদি আরব ও অন্য তিনটি আরব রাষ্ট্র আল-জাজিরা টেলিভিশন বন্ধ করে দেয়ার যে দাবি করছে তা অগ্রহণযোগ্য। এটা মুক্ত মত ও সংবাদ প্রকাশের অধিকারের ওপর আক্রমণ। জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার জায়েদ রাদ আল হোসেনের মুখপাত্র রুপার্ট কোলভিলে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আল-জাজিরা টেলিভিশন বন্ধ করে দেয়ার যে দাবি করা হয়েছে তাতে জায়েদ রাদ আল হোসেন ভীষণভাবে উদ্বিগ্ন। তিনি বলেন, আপনি তাদের সম্পাদকীয় অবস্থান পছন্দ করেন বা না করেন, একমত হন বা না হন, আল-জাজিরার আরবি ও ইংরেজি চ্যানেল বৈধ। লক্ষ লক্ষ দর্শক রয়েছে এর। এদিকে কাতারের অধিকারের প্রতি সম্মান দেখিয়ে সংকটের ইতি টানার আহ্বান জানিয়েছে তুরস্ক। কাতার পরিস্থিতি নিয়ে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় বৈঠক করেছেন কাতারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খালিদ বিন মোহাম্মদ আল আত্তিয়াহ ও তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফিকরি আইসিক। শুক্রবারের ওই বৈঠকে তুর্কি প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, বর্তমানে উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে যে অবস্থা চলছে তা অবিলম্বে আন্তরিক আলোচনা ও কাতারের অধিকারের প্রতি সম্মান দেখানোর মাধ্যমে সমাধান করতে হবে। কারণ এ দেশগুলো অপরের ভাই।

0 comments:

Post a Comment