Last update
Loading...

জনপ্রিয় নারী সাংবাদিককে ট্রাম্পের অশ্লীল আক্রমণ

যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতিমান এক নারী সাংবাদিককে অশ্লীল ভাষায় টুইট করায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েছেন। খোদ তারই দল রিপাবলিকানের জ্যৈষ্ঠ নেতা ও ডেমোক্রেটিক দলের নেতারা ট্রাম্পের এ কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন। সাংবাদিক মিকা বারজেজিন্সকিকে ‘কম আইকিউয়ের অধিকারী বেপরোয়া মিকা’ বলে কটাক্ষ করেন ট্রাম্প। এছাড়া মিকার সহকারী উপস্থাপক জোয়ে স্কারবোরাকে ‘মাতাল জোয়ে’ বলে আক্রমণ করেন তিনি। এমএসএনবিসি টিভি চ্যানেলের ‘মর্নিং জোয়ে’ অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন এ দুই সাংবাদিক। ‘মর্নিং জোয়ে’ অনুষ্ঠানকে ‘খারাপ রেটিং’ বলেও মন্তব্য করেন ট্রাম্প। খবর বিবিসি ও ওয়াশিংটন পোস্টের। কয়েক সপ্তাহ আগে ‘মর্নিং জোয়ে’ অনুষ্ঠানে স্কারবোরা ট্রাম্পকে ‘মূর্খ মাতাল’ বলে মন্তব্য করেন এবং তাকে এমন শিশুর সঙ্গে তুলনা করেন যিনি তার প্যান্টে কার্য সম্পাদন করেন। এসময় মিকা ট্রাম্পের প্রশাসনের সদস্যদেরকে ‘কম মানসিক ও আবেগপ্রবণ’ বলে কটাক্ষ করেন। বৃহস্পতিবার টুইটে ট্রাম্প বলেন, ‘খারাপ রেটিংয়ের মর্নিং জোয়ে অনুষ্ঠানে আমাকে নিয়ে মন্দ কথা বলা হয়েছে। এ অনুষ্ঠান আর দেখবেন না।’ মিকাকে উদ্দেশ্য করে তিনি টুইটে লেখেন, ‘তার কসমেটিক সার্জারি করা মুখমণ্ডল থেকে খুব বাজেভাবে রক্ত ঝরছে।’ ট্রাম্প দাবি করেন, কয়েক মাস আগে মিকা ও জোয়ে ফ্লোরিডায় মার-এ-লাগো গলফ ক্লাবে তার সঙ্গে কিছু সময় অতিবাহিত করতে চেয়েছিলেন। এর জবাবে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি তাদেরকে না বলে দিয়েছিলাম।’ রিপাবলিকান দলের সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম ট্রাম্পের এ ধরনের টুইটকে ‘প্রেসিডেন্ট দফতরের অভ্যন্তরের’ মন্তব্য বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্পের ওই টুইট আমেরিকার রাজনীতি যে কতটা নিচু পর্যায়ে পৌঁছেছে তার ইঙ্গিত দেয়। এর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের মহাত্ত্বতার পরিচয় ফুটে ওঠে না।’
রিপাবলিকান দলের আরেক সিনেটর বেন স্যাসে বলেন, ‘দয়া করে এসব বন্ধ করুন। এটি কোনো স্বাভাবিক আচরণ নয়।’ রিপাবলিকান দলের হাউস স্পিকার পল রায়ানও এ সমালোচনায় যোগ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এটি কোনো যৌক্তিক ও যথার্থ মন্তব্য নয়। আমরা এখানে চারপাশে থেকে তার বাচনভঙ্গি ও বিতর্কের শিষ্টাচারে কি উন্নতি আনতে চেষ্টা করছি। এটি স্পষ্টতই কোনো সাহায্যে আসছে না।’ এমএসএনবিসি জানায়, ‘এটি আমেরিকার জন্য একটি খারাপ দিন। যেখানে প্রেসিডেন্ট তার অফিসিয়াল কাজ বাদ দিয়ে মিথ্যাচার, ব্যক্তিগত আক্রমণ ও কাউকে কটাক্ষ করতে সময় ব্যয় করছেন।’ ডেমোক্রেটিক দলের হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভ ন্যান্সি পেলোসি বলেন, ট্রাম্পের টুইট ছিল চরম অশ্লীল, গণমাধ্যমের স্বাধীনতার প্রতি আঘাত এবং সব নারীর প্রতি কটাক্ষের শামিল। কিন্তু হোয়াইট হাউস ট্রাম্পের সাফাই গেয়েছে। ফক্স নিউজকে হোয়াইট হাউসের নারী মুখপাত্র সারাহ হুকাবি স্যান্ডার্স বলেন, আমি মনে করি না যে কখনও এমন কোনো প্রেসিডেন্ট ছিলেন না যিনি কাউকে আক্রমণ করে কথা বলেননি।’

0 comments:

Post a Comment