Last update
Loading...

জার্মানি না চিলি?

বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলেও এবার ফিফা কনফেডারেশন্স কাপে একদম নতুন চেহারার এক দল নিয়ে এসেছে জার্মানি। দলে বড় কোনো তারকা না থাকায় শুরুতে অনেকেই তাদের গোনায় ধরেনি। কিন্তু সব সমীকরণ পাল্টে দিয়ে টুর্নামেন্টে সবচেয়ে কম বয়সী দলটাই দারুণ ছন্দময় ফুটবল খেলে উঠে এসেছে ফাইনালে। এবার আসল পরীক্ষা। রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গে ফিফা কনফেডারেশন্স কাপের ফাইনালে আজ কোপা চ্যাম্পিয়ন চিলির মুখোমুখি হবে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। বিশ্বকাপের পোশাকি মহড়াখ্যাত এ টুর্নামেন্টে দু’দলের সামনে প্রথম শিরোপা জয়ের হাতছানি। ব্রাজিল (৪), ফ্রান্স (২), আর্জেন্টিনা, মেক্সিকো এবং ডেনমার্ক একবার করে এ টুর্নামেন্ট জিতেছে। এই প্রথম চিলি এবং জার্মানি ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে চিলি এখন সমীহ জাগানো এক দল। ২০১৫, ১৬ সালে টানা দু’বার আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর তৃতীয় আন্তর্জাতিক শিরোপায় চোখ তাদের। আর্সেনাল ফরোয়ার্ড অ্যালেক্সিস সানচেজ সেই অর্থে এখনও জ্বলে উঠতে পারেননি। রক্ষণভাগের দৃঢ়তায় দল ফাইনালে উঠেছে। সুযোগ সন্ধানী সানচেজ তাই ‘শেষ ঝলক’ দেখানোর অপেক্ষায় থাকবেন। ফাইনালের থিম সং হয়ে গেছে জার্মানির আক্রমণ বনাম চিলির রক্ষণ। রাশিয়া আসার পর রক্ষণভাগ জার্মানদের বেশ ভুগিয়েছে। ম্যাথিয়াস গিন্টার খুব একটা ছন্দে নেই। এমনকি উঁচু বলে কিমিচকেও মাঝে মাঝে নড়বড়ে মনে হয়েছে। তবে চার ম্যাচে ১১ গোল করা জার্মানির আক্রমণভাগ কতটা ছন্দে আছে, সেটা বুঝতে সাহায্য করবে একটি তথ্য। তিনজন জার্মান গোল্ডেন বুটের দৌড়ে আছেন। টিমো ওয়ার্নার তিন গোল করেছেন, করিয়েছেন একটি। লিওন গোরেৎজকা করেছেন তিনটি এবং লার্স স্টিনডল করেছেন দুটি।
গোল্ডেন বুটের দৌড়ে অন্য দল থেকে কেবল রোনাল্ডো বিবেচনায় আছেন। তিনি করেছেন দুটি গোল, করিয়েছেন একটি। ফাইনালে তার দল না থাকায় জার্মানদের মধ্যে থেকে যে কেউ ‘সোনার বুট’ নিয়ে বাড়ি ফিরবেন বলেই মনে হচ্ছে। আজ তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে মেক্সিকোর মুখোমুখি হবে রোনাল্ডোবিহীন পর্তুগাল। একদম তরুণ দল নিয়ে খেলতে এসে জার্মানি কোচ জোয়াচিম লো ফাইনাল পর্যন্ত চলে এসেছেন। তিনি বলছেন, তার দলের হারানোর কিছু নেই। তবে সেমিফাইনালে মেক্সিকোকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেয়ার পর লো এখন শিরোপার ছবিই আঁকছেন, ‘আমরা জানি চিলি খুবই শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। আমাদের কাজ এখনও শেষ হয়নি। তবে আমার তরুণ দলটি চিলিকে হারানোর ব্যাপারে আত্মবিশ্বসী।’ অন্যদিকে পর্তুগালকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ফাইনালে ওঠা চিলি জার্মানির এই মানসিকতা নিয়ে সতর্ক। দলটির কোচ পিজ্জি বলছেন, জার্মানদের আক্রমণভাগ তার নজরে আছে। এই পজিশন নিয়ে তার দল সতর্ক থাকবে। টুর্নামেন্টের গ্রুপপর্বে চিলির সঙ্গে দেখা হয় জার্মানির। ওই ম্যাচটি কেউ জিততে পারেনি। ১-১ সমতায় শেষ হয় খেলা। ফাইনালেও যদি এ অবস্থা হয়, তাহলে চিলি ফেভারিট থাকবে। কেননা তাদের বারের নিচে ‘ব্রাভো’ নামের এক দেয়াল আছেন। যিনি পর্তুগালের টানা তিন শট ঠেকিয়ে নায়ক হয়ে গেছেন। গত বছর কোপার ফাইনালে মেসিকেও কাঁদিয়েছিলেন ব্রাভো। এবার জার্মানিকে হারিয়ে নিজেদের বিশ্বসেরা প্রমাণ করতে চান চিলির মিডফিল্ডার আর্তুরো ভিদাল, ‘গত কয়েক বছরে আমরা নিজেদের জাত চিনিয়েছি। আর্জেন্টিনা ও পর্তুগালকে হারিয়েছি। ফাইনালে জার্মানির বিপক্ষে জিতলে প্রমাণ হয়ে যাবে আমরাই বিশ্বের সেরা দল।’ ওয়েবসাইট।

0 comments:

Post a Comment