Last update
Loading...

জাইকার সঙ্গে ১৩ হাজার ৩৬৬ কোটি টাকার ঋণচুক্তি

মাতারবাড়ি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ বাংলাদেশের ছয় প্রকল্প বাস্তবায়নে ১৭৮ দশমিক ২২ বিলিয়ন ইয়েন দিচ্ছে জাপান। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৩৬৬ কোটি টাকা (প্রতি ইয়েন ৭৫ পয়সা হিসেবে)। এ জন্য জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা) সঙ্গে বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি-২ সম্মেলন কক্ষে এ চুক্তি স্বাক্ষর হয় বলে সংস্থাটি সূত্রে জানা গেছে। এ ঋণের অর্থে যেসব প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে সেগুলো হচ্ছে, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সম্প্রসারণ প্রকল্প বাস্তবায়নে ৭৬ দশমিক ৮২ বিলিয়ন জাপানি ইয়েন ব্যয় করা হবে। এ ছাড়া মাতারবাড়ি আল্ট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কোল ফায়ারড পাওয়ার প্লান্ট প্রজেক্টে ১০ দশমিক ৭৪ বিলিয়ন ইয়েন ব্যয় হবে। কাঁচপুর-মেঘনা এবং গোমতি দ্বিতীয় সেতু নির্মাণ এবং বিদ্যমান সেতুর সংস্কার প্রকল্প (দ্বিতীয় পর্যায়) প্রকল্প বাস্তবায়নে ৫২ দশমিক ৭৩ বিলিয়ন ইয়েন ব্যয় হবে। ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট (মেট্রোরেল) প্রজেক্ট বাস্তবায়নে ৫ দশমিক ৫৯ বিলিয়ন ইয়েন, ঢাকা আন্ডারগ্রাউন্ড সাবস্টেশন কনস্ট্রাকশন প্রজেক্ট বাস্তবায়নে ২০ দশমিক ৪৭ বিলিয়ন ইয়েন এবং স্মল স্কেল ওয়াটার রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (ফেজ-২) বাস্তবায়নে ১১ দশমিক ৮৫ বিলিয়ন ইয়েন ব্যয় করা হবে। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এর আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী ঋণের বিষয়ে আলোচনা করেছিলেন। সেই আলোচনার অংশ হিসেবে জাপান বড় অংকের এই ঋণ দিচ্ছে। সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন এবং ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে যেতে এ ঋণ ভূমিকা রাখবে। জাইকা বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন এবং সামাজিক উন্নয়নে সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।

0 comments:

Post a Comment