Last update
Loading...

সূচ-মানবের দেহ থেকে ৯২ সূচ অপসারণ

ভারতের রাজস্থানের কোটা এলাকার বদ্রি লালের (৫৬) দেহ থেকে চিকিৎসকরা অপারেশনের মাধ্যমে বের করে এনেছেন ৯২টি সূচ। চিকিৎসকরা ধারণা করছেন তার দেহের বিভিন্ন স্থানে এমন ১৫০টি সূচ বিঁধে আছে। এ জন্য এরই মধ্যে বদ্রি লাল স্থানীয়ভাবে ‘পিন ম্যান’ বা সূচ মানব উপাধি পেয়েছেন। তিনি রেলওয়েতে কর্মরত। তার দেহে এতগুলো সূচের মধ্যে অনেক পিন তার শ্বাসনালী, খাদ্যনালী, স্বরযন্ত্র, রক্ত প্রবাহের সঙ্গে মিশে ছিল। এ সব স্পর্শকাতর অঙ্গে এভাবে সূচ বিঁধে থাকায় মারাত্মক সমস্যায় পড়েছিলেন বদ্রি লাল। অবশেষে তিনি চিকিৎসকদের দ্বারস্থ হয়েছেন। কিন্তু কিভাবে এতগুলো সূচ তার শরীরের ভিতর তার কোনো সদুত্তর দিতে পারেন নি বদ্রি লাল বা তার পরিবারের সদস্যরা। তবে চিকিৎসকরা মনে করছেন বদ্রি লাল মানসিক অসুস্থতার সময়ে দেহে সূচ ফুটিয়ে থাকতে পারেন। এখন সেগুলো তার জীবনের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ। এতে বলা হয়, সম্প্রতি তার অপারেশন করেছেন চিকিৎসকরা। তার দেহে যেসব স্থানে পিন বা সূচগুলো প্রাণঘাতী হয়ে উঠেছিল শুধু সেসব সূচ অপসারণ করেছেন। এমন সূচের সংখ্যা ৯২ টি। বিষয়টি বদ্রি লালের পরিবার তখনই জানতে পারে যখন তার পায়ে ইনফেকশন হয়। তা পেকে পুজ বের হয়। এক পর্যায়ে সেখান দিয়ে একটি সূচের মাথা বেরিয়ে আসে। এরপরই তার শরীরের এক্সরে করা হয়। পুরো শরীর এক্সরে করে দেখা যায় শরীর ভর্তি শুধু সূচ। অনেক জটিলতা থাকায় ৬টি হাসপাতাল তাকে চিকিৎসা দিতে অস্বীকৃতি জানায়। টাইমস অব ইন্ডিয়ার রিপোর্টে বলা হয়েছে, বদ্রি লালের ডায়াবেটিক আছে। এখন সূচের কারণে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। এমনকি তিনি খাবারও গ্রহণ করতে পারেন না। ফলে গত তিন মাসে তার ওজন কমে ৩০ কেজিতে নেমে এসেছে।

0 comments:

Post a Comment