Last update
Loading...

স্ত্রী নির্যাতনকারী কলেজ শিক্ষক জেল হাজতে

যৌতুকের জন্য আইনজীবী স্ত্রীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করায় কলেজ শিক্ষক স্বামী মুসলিম সরদার মিশুকে শনিবার রাতে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে স্থানীয়রা। এরপর তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওয়ালিউল্যাহ ওলি জানান, স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে ক্ষুব্ধ জনতা মুসলিম সরদার মিশুকে আটক করে থানায় খবর দেয়। আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে থানায় নিয়ে আসি। রোববার ওই শিক্ষকসহ ৫ জনকে আসামি করে চাঁদপুর মডেল থানায় মামলা করেছেন নির্যাতিতা স্ত্রী অ্যাড. কুলসুমা বেগম। পরে রোববার বিকালে আটককৃত শিক্ষক মুসলিম সরদার মিশুকে চাঁদপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি। প্রসঙ্গত, মুসলিম সরদার মিশু চাঁদপুর সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারি শিক্ষক। তার বিভাগের ৩ ছাত্রীকে নেশাদ্রব্য খাইয়ে শ্লীলতাহানির অভিযোগে তাকে শাস্তিমূলক বদলি করা হয় লালমনিরহাট পাটগ্রাম জসমুদ্দিন সরকারি কলেজে। লালমনিরহাট থেকে চাঁদপুর আসার জন্য মিশু তার স্ত্রী অ্যাড. কুলসুমা বেগমের কাছে ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। এ টাকা না দেয়ায় শিক্ষক মিশু চাঁদপুরের ষোলঘরস্থ ভাড়া বাসায় স্ত্রীর ওপর মধ্যযুগীয় কায়দায় দু’দফা নির্যাতন চালায়। নির্যাতিত স্ত্রীর ছবি ফেসবুকে ভাইরালও হয়।

0 comments:

Post a Comment