Last update
Loading...

মির্জাপুরে নদীতে নিখোঁজের ৩ দিন পর ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বংশাই নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে সুমাইয়া আক্তার (১৬) নামে দশম শ্রেণীর এক ছাত্রী নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর আজ বুধবার ভোররাতে তার লাশ উদ্ধার হয়েছে। তার পিতার নাম মো: সরবেশ আলী। গত সোমবার টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ত্রিমোহন বান্দরমারা গ্রামে এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছিল। আজ বুধবার মির্জাপুর এস কে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: রফিকুল ইসলাম খাঁন জানান, সুমাইয়া এস কে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর বিজ্ঞান শাখার একজন মেধাবী ছাত্রী। গত সোমবার বিকেলে সুমাইয়া বাড়ির পাশে বংশাই নদীতে গোসল করতে যায়। গোসল করতে গিয়ে হঠাৎ সে নদীর পানিতে তলিয়ে যায়। বাড়ির লোকজনও আশপাশের লোকজন ঘটনা জানতে পেরে অনেক খোঁজাখুঁজি পরও তাকে না পেয়ে মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কর্মীদের খবর দেয়। তারা অনেক চেষ্টার পরও সুমাইয়াকে উদ্ধার করতে পারেনি। পরে ময়মনসিংহ জেলার ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলকে খবর দিলে রাতে তারা ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায়।
গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত ডুবুরী দল ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা অনেক চেষ্টার পরও সুমাইয়ার লাশ উদ্ধার করতে না পেরে ফিরে যায়। আজ বুধবার ভোর রাতে স্থানীয় লোকজন বংশাই নদীর ত্রিমোহন এলাকায় সুমাইয়ার লাশ ভেসে থাকতে দেখে তার পরিবারকে খবর দেয়। পরে তারা লাশ উদ্ধার করে সকালে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করে। এ ব্যাপারে মির্জাপুর উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অফিসের স্টেশন অফিসার মো: আতাউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেসের কর্মীসহ ময়মনসিংহ থেকে আসা ডুবুরী দল লাশ উদ্ধারের জন্য চেষ্টা করে লাশ না পেয়ে ফিরে এসেছে। তবে আজ বুধবার সকালে স্থানীয় লোকজন লাশ ভেসে থাকতে দেখে তার পরিবারের সদস্যদের খবর দিলে লাশ উদ্ধারের পর কবর দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

0 comments:

Post a Comment