Last update
Loading...

মহাত্মা গান্ধী ‘ধুরন্ধর বেনিয়া’!

ভারতের জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীকে ‘ধুরন্ধর বেনিয়া’ বলে মন্তব্য করেছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। ছত্তিশগড় সফরে গিয়ে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ গান্ধীজীর পাশাপাশি কংগ্রেসের তীব্র সমালোচনা করেন। রায়পুরে এক সভায় তিনি বলেন, কংগ্রেসের সুনির্দিষ্ট কোনো নীতিই নেই। কংগ্রেস কোনো একটি বিশেষ মতাদর্শ বা বিশেষ সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে গড়ে ওঠেনি। কংগ্রেস ছিল সে ফ দেশের স্বাধীনতা অর্জনের জন্য একটি প্লাটফর্ম। দক্ষিণপন্থী থেকে বামপন্থী, সমাজবাদী ও কমিউনিস্ট বিভিন্ন আদর্শে বিশ্বাসীরা কংগ্রেসে শামিল হয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘মহাত্মা গান্ধীর দূরদৃষ্টি ছিল। ‘চতুর বেনিয়া’ মহাত্মা জানতেন কী হতে পারে।
স্বাধীনতার পরে তাই তিনি বলেছিলেন, কংগ্রেস ভেঙে দেয়া উচিত। মহাত্মা গান্ধী করেননি, কিন্তু এখন কিছু লোক ওই দল ভেঙে ফেলার কাজ সম্পন্ন করছেন। এজন্যই ওই কথা বলেছিলেন মহাত্মা গান্ধী। কেননা কংগ্রেসের কোনো আদর্শ ছিল না। দেশ চালানো, সরকার চালানোর কোনো তত্ত্বই ছিল না।’ অমিত শাহের ওই মন্তব্যের পরেই কংগ্রেস নেতার ক্ষুব্ধ হয়েছেন। কংগ্রেস দলের মুখপাত্র রণদীপ সূরজেওয়ালা বলেছেন, ‘মহাত্মা গান্ধীকে চরম অপমান করেছেন অমিত শাহ। দেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে বহু মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। এমনকি অনেকে জীবন দান করতেও পিছপা হননি। তাদেরকে সুবিধাবাদী তকমা দিয়েছেন বিজেপি সভাপতি।’ কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা দিগি¦জয় সিং বলেছেন, ‘অমিত শাহর মন্তব্যে অবাক হওয়ার কিছু নেই। গান্ধীজীকে নিয়ে তিনি আরএসএস এবং বিজেপির আসল ভাবনাই প্রকাশ করেছেন।’ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও অমিত শাহ’র মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন। তার মতে, ‘মহাত্মা গান্ধী জাতির জনক। দেশবাসীর কাছে তিনি আদর্শ। তার সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য একেবারেই ঠিক নয়।’

0 comments:

Post a Comment