Last update
Loading...

আয়ারল্যান্ডের সমকামী প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ

আয়ারল্যান্ডের প্রথম সমকামী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন সদ্য নির্বাচিত লিও ভারাদকার। নির্বাচিত হবার তেরো দিন পর বুধবার দায়িত্ব বুঝে নেন দেশটির সর্বকনিষ্ঠ এ প্রধানমন্ত্রী। ৩৮ বছর বয়সী লিও ভারাদকার সমগ্র ইউরোপের সর্বকনিষ্ঠ ও প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভুত আয়ারাল্যাণ্ডের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব বুঝে নিলেন। গত ২ জুন প্রাক্তন আইরিশ প্রধানমন্ত্রী এন্ডা কেনিকে হারিয়ে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন। নির্বাচনে ভারাদকার পেয়েছিলেন ৫৭ ভোট এবং এন্ডা কেনি পেয়েছিলেন ৫০ ভোট। দায়িত্ব নেয়ার পর ভারাদকার জনসাধারণের উদ্দেশে বলেন, আমি যে সরকারের নেতৃত্ব দিচ্ছ তা ডানপন্থী বা বামপন্থী হবে না। তা হবে নিরপেক্ষ।' ভারাদকার ভারতীয় বংশোদ্ভুত আয়ার‌ল্যান্ডের নাগরিক। তার পিতা ছিলেন একজন ভারতীয় ডাক্তার। তিনি কাজের সন্ধানে আয়ারল্যান্ডে যান। সেখানেই বিয়ে করে ঘর বাধেন ভারাদকারের পিতা। মা একজন আইরিশ নার্স। বিজয়ী হবার পর ভারাদকার বলেন, যখন আমার পিতা ৫ হাজার মাইল পথ অতিক্রম করে আয়ার‌ল্যান্ডে বসতি স্থাপন করেছিল তখন তিনি হয় চিন্তা করেননি যে, তার সন্তান আয়ারল্যান্ডের নেতা হিসেবে বেড়ে উঠবে। এতে প্রমাণ হয় আয়ার‌ল্যান্ডে কোনো কুসংস্কারের স্থান নেই। ভারাদকার দলের প্রধান এন্ডা কেনির ইস্তফা দেয়ার প্রেক্ষিতে দায়িত্ব নিতে দিলেন। এন্ডা কেনি বিগত ১৫ বছর ওই দায়িত্বে ছিলেন। তিনি ২০১১ সালে আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হন। আর ভারাদকার নির্বাচিত হবার আগে সেখানকার সামাজিক সুরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন। ভারাদকারের বিজয়ের পেছনে তার অতীত ইতিহাস এবং যৌন জীবনের বিষয়গুলো বেশি গুরুত্ব পেয়েছে বলে গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে। ২০১৫ সালে আয়ার‌ল্যান্ডে সমকামী বিয়ে নিয়ে অনুষ্ঠিত গণভোটের সময় ভারাদকারের সমকামিতার খবর প্রকাশ পায়। ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত সেখানে সমকামিতা ছিল আইনত অবৈধ।

0 comments:

Post a Comment