Last update
Loading...

অস্ট্রেলিয়া-বধের ১২ বছর

অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশ হারাবে, এমন বাজির দর ছিল ৫০০/১। তবু ক্রিকেটে মাঝে-মধ্যে এমন সব ম্যাজিক দেখা যায়, যা কল্পনাকেও হার মানায়। যেমন ২০০৫-এর ১৮ জুন কার্ডিফে জাদু দেখিয়েছিল বাংলাদেশ। মোহাম্মদ আশরাফুলের ১০০, আফতাব আহমেদের বিশাল ছক্কা সেদিন কাঁদিয়েছিল অস্ট্রেলিয়াকে। হাবিবুল বাশারের বাংলাদেশের পাঁচ উইকেটের সেই মনোহর জয় কার্ডিফ-কাব্য রচনা করেছিল সেদিন। সেই ঐতিহাসিক জয়ের একযুগ পূর্তি হল কাল। ন্যাটওয়েস্ট সিরিজের ওই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে পাঁচ উইকেটে ২৪৯ রানে আটকে দিয়ে বাংলাদেশ সেই রান টপকে যায় চার বল বাকি থাকতে। ম্যাচসেরা আশরাফুল ১০১ বলে পুরো ১০০ রান করেন ১১টি চারের সহায়তায়। অধিনায়ক হাবিবুল বাশারের ব্যাট থেকে আসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৭ রান। জ্যাসন গিলেস্পিকে মারা আফতাব আহমেদের বিশাল ছক্কা স্টেডিয়ামের বাইরে ট্যাফ নদীতে গিয়ে পড়েছিল। ক্রিকেটবোদ্ধারা বাংলাদেশের এ অবিস্মরণীয় জয়কে ইতিহাসের অন্যতম সেরা অঘটন হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। কিন্তু পাঁচ উইকেট হাতে রেখে টাইগারদের এমন দাপুটে জয়কে অঘটন আখ্যা দেয়াটা অন্যায় হবে। শেষ ওভারে দরকার ছিল সাত রান। আফতাব আহমেদ ও মোহাম্মদ রফিক ক্রিজে। গিলেস্পিকে মিড-উইকেটের ওপর দিয়ে ছয় মারার পরের বলে এক রান নিয়ে বাংলাদেশকে কখনও না-ভোলা জয় এনে দেন আফতাব। যে পরাজয়ের বর্ণনা সিডনির ডেইলি টেলিগ্রাফ করেছিল এভাবে- ‘আমাদের ক্রীড়া ইতিহাসের সবচেয়ে বিব্রতকর হার।’

0 comments:

Post a Comment