Last update
Loading...

টঙ্গীতে দোকান কর্মচারী খুন, আটক ২

গাজীপুরের টঙ্গীতে তমাল (১২) নামে টাইলসের দোকানের এক কর্মচারী খুন হয়েছে। বুধবার রাতে টঙ্গীর খাঁপাড়া রোড মোল্লাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দোকান মালিকসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত তমাল শেরপুরের সদর উপজেলার তিরশা গ্রামের মৃত সোহরাব আলীর ছেলে। নিহতের ভাই আপন বাবু জানান, স্থানীয় বাদশা মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থেকে তমাল টঙ্গীর খাঁপাড়া উত্তর আউচপাড়া এলাকার আহসান উল্লাহর টাইলসের দোকানে কর্মচারী হিসেবে কাজ করত। প্রতিদিন রাত ১০টা-১১টার মধ্যে সে বাসায় ফিরতো। কিন্তু বুধবার রাত ১১টার দিকেও বাসায় না ফিরলে তার মোবাইল ফোন করা হয়। কিন্তু সে ফোন রিসিভ করছিল না। এরপর রাত সোয়া ১১টার দিকে তমালের বন্ধু নাজমুল ও দোকান মালিক আহসান উল্লাহ খবর দেয় স্থানীয় সাবেক কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন মোল্লার নির্মাণাধীণ ভবনের এক কোণায় তমাল অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে রাতেই তমালের মা হুজুরা বেগম বাদী হয়ে আহসান উল্লাহকে প্রধান আসামি এবং অজ্ঞাত আরও ১০-১২ জনকে আসামি করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তার অভিযোগের ভিত্তিতে দোকান মালিক মো. আহসান উল্লাহ (৩২) ও তমালের বন্ধু নাজমুল আলম (১৪) আটক করেছে পুলিশ। আটক আহসান সাংবাদিকদের জানান, রাত ১০টার দিকে দোকান বন্ধ করে দুইজন যার যার মত চলে যাই। রাত সোয়া ১১টার দিকে আমার বন্ধু আবু ববকর ফোন করে জানান, দোকান কর্মচারী তমাল ওই ভবনের নিচে পড়ে আছে। খবরটি তার স্বজনদের জানিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। এছাড়া আমি আর কিছু জানি না। টঙ্গী থানা এসআই মো. ছিদ্দিকুর রহমান জানান, নিহত তমালের মাথায় জখমের চিহ্ন রয়েছে। তার লাশ টঙ্গী হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এখনো মামলা এন্ট্রি হয়নি তবে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে টঙ্গী মডেল থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

0 comments:

Post a Comment