Last update
Loading...

ময়মনসিংহ বিভাগীয় নতুন শহরে ক্ষতিগ্রস্ত সবাইকেই পুনর্বাসন করা হবে

চরাঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্ত সবাইকেই পুনর্বাসন করা হবে বলে জানিয়েছেন ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার জি এম সালেহ উদ্দিন। জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বরাত দিয়ে তিনি একথা জানান। সোমবার পুলিশ সুপারের বাসভবনে নবাগত ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝির সংবর্ধনা ও সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, আমরা মনে করেছিলাম যতগুলো পরিবারকে পুর্নবাসন করা যায় ততগুলোই করবো। কিন্তু জনপ্রশাসন মন্ত্রী সবগুলো পরিবারকে পুনর্বাসন করা হবে ঘোষণা দিয়েছেন। বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ভূমিহীনদের খাস জমিতে পুনর্বাসন করা হবে। দুঃস্থ হলে তাদের জন্য নতুন ঘর তৈরি করে দেওয়া হবে। আপনারা জনপ্রশাসন মন্ত্রীর এ ঘোষণা ছাপাবেন। এতে সব ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে বলেও মনে করেন তিনি। ময়মনসিংহ বিভাগের উন্নয়ন পরিকল্পনায় বিভিন্ন সরকারি স্থাপনা নির্মাণ ও আধুনিক বিভাগীয় শহর গড়ার লক্ষ্যে ব্রহ্মপুত্র নদের পুর্বপাড়ের চরাঞ্চলে চার হাজার ৩৬৬ একর ভূমি অধিগ্রহণে প্রায় ১৭ হাজার পরিবারের ৬০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হবে। এসব পরিবারের মানুষ উচ্ছেদের আশঙ্কায় বসতভিটা রক্ষার দাবিতে বিগত প্রায় নয় মাস ধরে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, সংবাদ সম্মেলন ও স্মারকলিপি প্রদানসহ নানা লাগাতার কর্মসূচি পালন করে আসছেন। তারা বসতভিটা রক্ষা করে ময়মনসিংহ বিভাগীয় নতুন শহর গড়তে প্রস্তাবিত নকশা পরিবর্তন করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনাও করেন। এমতাবস্থায় নতুন শহর গড়ার কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়ে। তবে নতুন শহর গড়ার কার্যক্রম বাস্তবায়নে খুব শিগগিরই প্রশাসনিক পদক্ষেপ নিতে ঢাকায় উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলেও আভাস দিয়েছেন। এ ব্যাপারে সবার সহযোগিতাও কামনা করেছেন বিভাগীয় কমিশনার। অনুষ্ঠানে নবাগত ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোজাম্মেল হক, অতিরিক্ত ডিআইজি ড. আক্কাস উদ্দিন ভুইয়া, জেলা প্রশাসক মো. খলিলুর রহমান, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনোয়ার হোসেন, জেলা নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান, আনন্দমোহন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ জাকির হোসেন, রেঞ্জ পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারগণ এবং প্রিণ্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

0 comments:

Post a Comment