Last update
Loading...

আলমডাঙ্গায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থী নেতা নিহত

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টির আঞ্চলিক কমান্ডার ওল্টু মণ্ডল (৪৩) নিহত হয়েছেন। এসময় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। বুধবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার তালুককররা-পারলক্ষ্মীপুরের মধ্যবর্তী কুড়ির মাঠে এ ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে। নিহত ওল্টু মণ্ডল উপজেলার তিয়রবিলা গ্রামের ঝড় মণ্ডলের ছেলে। ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাব-৬ এর ঝিনাইদহ আঞ্চলিক কমান্ডার মেজর মনির আহমেদ জানান, রাতে র‌্যাবের একটি টহলদল চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার খাসকররা ইউনিয়ন এলাকায় টহলে যায়। র‌্যাব তালুককররা-পারলক্ষ্মীপুর সড়কে পৌঁছালে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে মাঠ থেকে গুলি ছুড়তে থাকে সন্ত্রাসীরা।
র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ চলে গুলির লড়াই। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হঁটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে রাত ৩টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। নিহত ব্যক্তিকে দেখে এলাকাবাসী জানায়, তার নাম ওল্টু। তিনি চরমপন্থী সংগঠন পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টির আঞ্চলিক কমান্ডার ছিল বলে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও আলমডাঙ্গা সার্কেল) তরিকুল ইসলাম জানান। তিনি বলেন, ওল্টুর বিরুদ্ধে জেলার বিভিন্ন থানায় হত্যা ও চাঁদাবাজিসহ ৬টি মামলা রয়েছে। এদিকে একটি সূত্র জানায়, চরমপন্থী নেতা ওল্টু ১৯৯৯ সালে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। ১৪ বছর কারাগারে থাকার পর ২০১৩ সালে মুক্তি পায়। এরপর তিনি ফের অন্ধকার জগতে পা বাড়ান।

0 comments:

Post a Comment