Last update
Loading...

ঈদে ২৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট

ঈদের আগে প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বাজারে ছাড়ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সব শাখা অফিস এবং রাজধানীর বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের ২০টি শাখার মাধ্যমে নতুন নোট বিনিময় করা যাবে। বিনিময় শুরু হবে আজ থেকে। চলবে ২২ জুন পর্যন্ত। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, একজন নাগরিক ৮ হাজার ৭০০ টাকার নতুন নোট নিতে পারবেন। ২ থেকে ৫০ টাকা মূল্যমানের একটি করে প্যাকেট (১০০ পিস করে) নিতে পারবেন একজন। তবে ১, ২ ও ৫ টাকার কয়েন নেয়া যাবে ইচ্ছামতো। ৮ জুন থেকে ২২ জুন পর্যন্ত সাপ্তাহিক ছুটি ব্যতীত ব্যাংকিং লেনদেন সময়ে নতুন নোট বিনিময় হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিস থেকে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নোট বিতরণ করা হবে। এতে একজন গ্রাহক একবারই নোট বিনিময়ের সুযোগ পাবেন। এছাড়া সারা দেশে বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্য শাখা অফিসের নির্ধারিত কাউন্টার থেকে নোট বিনিময় করা যাবে। এছাড়া রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের সুনির্দিষ্ট শাখার মাধ্যমে গ্রাহকরা নতুন নোট বিনিময় করতে পারবেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা বলেন, প্রতি বছরের মতো এবছরও ঈদ উপলক্ষে নতুন টাকার নোট বিনিময়ের সুযোগ রাখা হচ্ছে। এ বছর ২৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বিনিময়ের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট প্রথমবারের মতো বাজারে ছাড়া হচ্ছে। বাকি ১০ হাজার কোটি টাকা আগের জমা নেয়া ছেঁড়া-ফাটা অচল নোটের পুনর্মুদ্রণ।
যেসব শাখা থেকে নতুন নোট নেয়া যাবে : ন্যাশনাল ব্যাংক যাত্রাবাড়ী শাখা, জনতা ব্যাংক আবদুুল গণি রোড কর্পোরেট শাখা, অগ্রণী ব্যাংক এলিফ্যান্ট রোড শাখা, সিটি ব্যাংক মিরপুর শাখা, সাউথইস্ট ব্যাংক কাওরানবাজার শাখা, স্যোসাল ইসলামী ব্যাংক পান্থপথ বসুন্ধরা সিটি শাখা, উত্তরা ব্যাংক চকবাজার শাখা, সোনালী ব্যাংক রমনা কর্পোরেট শাখা, ঢাকা ব্যাংক উত্তরা শাখা, আইএফআইসি ব্যাংক গুলশান শাখা, রূপালী ব্যাংক মহাখালী শাখা, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক মোহাম্মদপুর শাখা, জনতা ব্যাংক রাজারবাগ শাখা, পূবালী ব্যাংক সদরঘাট শাখা, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক মালিবাগ শাখা, ওয়ান ব্যাংক বাসাবো শাখা, ইসলামী ব্যাংক শ্যামলী শাখা, ডাচ্ বাংলা ব্যাংক দক্ষিণখান শাখা, মার্কেন্টাইল ব্যাংক বনানী শাখা এবং ব্যাংক এশিয়া ধানমণ্ডি শাখা। এদিকে বাজারে আসছে শতভাগ কটন কাগজে নতুন নিরাপত্তা সুতা সংবলিত ১০০ ও ৫০০ টাকার ব্যাংক নোট। আগামী ১১ জুন রোববার থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিস এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্যান্য অফিস থেকেও এ নোট ইস্যু করা হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা গেছে, উচ্চমূল্যমানের ব্যাংক নোটের নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য আরও সুদৃঢ় করার লক্ষ্যে বিদ্যমান কাগজের পরিবর্তে উন্নতমানের কটন কাগজে মুদ্রিত হবে এ নোট। ৪ মিমি প্রশস্ত নিরাপত্তা সুতা সংযোজিত এ নোটে গভর্নর ফজলে কবিরের স্বাক্ষর থাকবে।

0 comments:

Post a Comment