Last update
Loading...

বনানী থেকে ফের চার যুবক নিখোঁজ

রাজধানীর বনানী থেকে ফের চার যুবক নিখোঁজ হয়েছেন। তাদের নিখোঁজের বিষয় জানিয়ে পরিবারগুলোর পক্ষ থেকে বনানী থানায় জিডি করা হয়েছে। নিখোঁজ যুবকরা হলেন- কামাল হোসেন (২২), ইমাম হোসেন (২৭),  হাসান মাহমুদ (২৬) ও তাদের বন্ধু তাওহীদুর রহমান (২৫)। এদের মধ্যে ইমাম হোসেন ও হাসান মাহমুদ ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি থেকে ইলেট্রনিক্স অ্যান্ড ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক সম্পন্ন করার পর কম্পিউটার সায়েন্সে মাস্টার্স করেন। আর কামাল হোসেন নিউ ইস্কাটন এলাকার দিলু রোডের জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদরাসা থেকে দাওরা হাদিস ডিগ্রি সম্পন্ন করেছেন। নিখোঁজ ইমাম, হাসান ও কামাল বনানীর সি-ব্লকের ৪ নম্বর সড়কের ৬৭/এ, মোস্তফা ম্যানসনের ইন্টারকম ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল ও টেলেক্স লিমিটেড নামের আইটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। আর তাওহীদুর রহমান ওই তিন যুবকের বন্ধু বলে জানা গেছে। তবে তার বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি। পুলিশ তাওহীদুরের বিষয়ে অনুসন্ধান করছে। গত ৩ এবং ৪ জুন তাদের নিখোঁজ বিষয়ে বনানী থানায় পৃথক তিনটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। বনানী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বজলুর রহমান ও সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনটি জিডির দুটি এসআই বজলুর রহমান ও একটি সোহেল রানা তদন্ত করছেন বলে জানান।পুলিশ জানায়, গত ৩ জুন থেকে এই চার যুবক নিখোঁজ হন। তারা সবাই ধর্মীয় ভাবধারার ছিল।
একই দিন তাদের নিখোঁজ হওয়াটা রহস্যজনক। আমরা তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ আরও জানায়, নিখোঁজ কামাল কড়াইল বড় মসজিদের মেসে থাকতো। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের উত্তর মতলবের বাড়িবান্দা। তার বাবার নাম আবুল কাশেম। তিন ভাইবোনের মধ্যে সে সবার বড়। নিখোঁজ অপর যুবক ইমাম হোসেনের বাড়ি তেজগাঁওয়ের মনিপুরীপাড়ায়। তার বাবার নাম বিল্লাল হোসেন। তিনি সৌদি ফেরত প্রবাসী। এছাড়া নিখোঁজ হাসান মহাখালীর ওয়্যারলেস গেট এলাকার একটি বাসায় থাকতো। তার গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জে। তবে তাওহীদুরের বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে পারেনি পুলিশ। এসআই সোহেল রানার ভাষ্য, তার বিষয়ে অনুসন্ধান চলছে। যতটুকু জানতে পেরেছি আইটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করা নিখোঁজ  তিন যুবকের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব রয়েছে। এর আগে গত বছরের ১ ডিসেম্বর রাজধানীর বনানী এলাকা থেকে একসঙ্গে চার যুবক নিখোঁজ হয়েছিলেন। তারা হলেন- সাফায়েত হোসেন, জায়েন হোসেন খান পাভেল, সুজন ও মেহেদী হাওলাদার। এদের মধ্যে সাফায়েত ও পাভেল নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী। গত ১৮ এপ্রিল মেহেদী হাওলাদার এবং ২৮ মে সুজন ও পাভেলকে মাইক্রোবাস থেকে নামিয়ে দিয়ে যায় অজ্ঞাত ব্যক্তিরা।তবে এখনো সাফায়েত হোসেন নিখোঁজ রয়েছে। এছাড়াও গত বছরের ৩০ নভেম্বর ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট থানার মাটিকাটা এলাকা থেকে কেয়ার মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী ইমরান ফরহাদ ও ৫ ডিসেম্বর বনানী এলাকা থেকে সাঈদ আনোয়ার খান নামে আরও দুই তরুণ নিখোঁজ হন। তাদের সন্ধান এখনো মিলেনি। কে বা কারা এবং কেন তাদের তুলে নিয়েছিল এ বিষয়ে এখনো কোনো তথ্য মেলেনি।

0 comments:

Post a Comment