Last update
Loading...

ট্রাম্পের বৃটেন সফর বাতিল চান জেরেমি করবিন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বৃটেন সফর বাতিল করার পক্ষে মত দিয়েছেন বিরোধী লেবার দলের নেতা জেরেমি করবিন। তিনি এক টুইটে বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের রাষ্ট্রীয় সফর বাতিল করাকে স্বাগত জানাই। প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে অস্বীকৃতি ও লন্ডনের মেয়র সাদিক খানের সমালোচনা করার কারণে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এমন অবস্থান নিয়েছেন করবিন। তিনি টুইটে আরো বলেছেন, লন্ডনের মেয়র ও প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাহারের কারণে তিনি এমন অবস্থান নিয়েছেন। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। বৃটেনের রাজনীতিতে এই মুহূর্তে বেশ জনপ্রিয় নেতা জেরেমি করবিন। তিনি প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’র প্রধানমন্ত্রিত্বকে প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছেন। নির্বাচনে তাকে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনে ব্যর্থ করে দিয়েছেন। পরক্ষণেই তিনি তেরেসা মে’কে পদত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনিই এবার ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলেন। যদিও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বৃটেন সফর সরকারিভাবে বা আনুষ্ঠানিকভাবে বাতিল করা হয় নি। তবে এ সফর নিয়ে জন অসন্তোষ সৃষ্টি হতে পারে এমন আশঙ্কায় তা আপাতত স্থগিত আছে। লন্ডন ব্রিজ হামলার পর মন্তব্যের কারণে করবিন ছাড়াও ট্রাম্পের সফর বাতিল করার পক্ষে মত দিয়েছেন আরো কিছু এমপি। ওই সময়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইট করে বলেছিলেন, সন্ত্রাসী হামলায় কমপক্ষে ৭ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হয়েছেন। লন্ডনের মেয়র বলছেন, উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। তার এ টুইটকে ভুল বলে উল্লেখ করেছেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে। ট্রাম্পের বৃটেন সফর বাতিল করার দাবি জানান লন্ডনের মেয়র সাদিক খান। প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর পর যুক্তরাষ্ট্র সফরে যান তেরেসা মে। ওই সফরের সময় তিনি ট্রাম্পকে বৃটেন সফরে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন ট্রাম্প। তবে এ সফরের সরকারি কোনো তারিখ ঘোষণা করা হয় নি।

0 comments:

Post a Comment