Last update
Loading...

মধ্য আফ্রিকায় ‘নিরাপত্তা শূন্যতা’র আশঙ্কা জাতিসঙ্ঘ দূতের

উগান্ডা, দক্ষিণ সুদান ও যুক্তরাষ্ট্র সেনা সদস্যদের প্রত্যাহার করায় মধ্য আফ্রিকায় ‘নিরাপত্তা শূন্যতা’ সৃষ্টি হবে বলে মঙ্গলবার আশঙ্কা করেছেন মধ্য আফ্রিকাবিষয়ক জাতিসঙ্ঘ প্রতিনিধি ফ্রান্সিস লাউনসেনি ফল। এলআরএ নেতা যোসেফ কনিকে ধরার জন্যে এসব বাহিনী যৌথ অভিযান চালিয়ে আসছিল। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র। দক্ষিণ আফ্রিকায় গত ৩০ বছর ধরে সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ লর্ডস রেসিসটেন্স আর্মি (এলআরএ) তৎপরতা চালিয়ে আসছে। এর নেতা যোসেফ কনি। ১৯৮৭ সালে কনি এই সন্ত্রাসী গ্রুপটি প্রতিষ্ঠা করেন। গ্রুপটি বিগত দিনে প্রায় এক লাখ লোকের শিরোশ্ছেদ করেছে। ৬০ হাজার শিশুকে অপহরণ করেছে। গত ১৯ এপ্রিল থেকে উগান্ডা প্রথম পূর্ব মধ্য আফ্রিকা থেকে তাদের সেনা প্রত্যাহার করে নেয়। সেই সাথে ইউএস আফ্রিকা কমান্ড (আফ্রিকম) তাদের বিশেষ বাহিনী’র এক শ' সদস্যকে অভিযান থেকে প্রত্যাহার করে নেয়। এই অভিযানে ওইমাসে তাদের খরচ ছিল ৬০ কোটি থেকে ৮০ কোটি ডলার। এদিকে যৌথ অভিযান সত্ত্বেও কনি এখনো ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে। জাতিসঙ্ঘ দূত ফ্রান্সিস বলেন, ‘সৈন্য প্রত্যাহারের ফলে সন্ত্রাসী গ্রুপগুলো আবারো মধ্য আফ্রিকায় মাথাচাড়া দিয়ে উঠবে। বিদ্যমান আফ্রিকান সৈন্যদের দিয়ে সন্ত্রাসী গ্রুপকে মোকাবেলা করা সম্ভব হবে না।’

0 comments:

Post a Comment