Last update
Loading...

খালেদা জিয়ার দুই মামলার পরবর্তী শুনানি ১৫ জুন

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুদকের দায়ের করা জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক হারুন অর রশিদকে পুনঃ জেরা আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামান আসামিপক্ষের আবেদন মঞ্জুর করে হারুন অর রশিদকে পুনরায় জেরা করার অনুমতি দেন। এ মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার দিন ধার্য ছিল। পরে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে রিকল আবেদনে পুনরায় জেরা করার আবেদন করেন। আদালত ওই আবেদন মঞ্জুর করলে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা তদন্ত কর্মকর্মাকে আংশিক জেরা করেন। জেরা শেষে সময় আবেদন করলে আদালত ১৫ জুন নতুন দিন ধার্য করেন। একই সাথে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলা ও ১৫ জুন শুনানির দিন ধার্য করেন। আদালতের কার্যক্রম শেষে বেলা ১টা ৩৫ মিনিটে খালেদা জিয়া আদালত অঙ্গন ত্যাগ করেন।
আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, এজে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, জাকির হোসেন ভূইয়া প্রমুখ। এর আগে আজ বেলা ১১টা ১১ মিনিটে জিয়া চ্যারিটেবল ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে বিশেষ আদালতে উপস্থিত হন বিএনপি চেয়ারপারসন। অন্যদিকে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে পুনরায় ছয়জন সাক্ষীকে পুনরায় জেরা কারার আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী এ মামলায় সাক্ষ্য দেওয়া ৬, ১২, ১৩, ১৫, ১৬, ১৭তম সাক্ষীকে পুনরায় জেরা করার আবেদন করেন। দুদকের পক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল এর বিরোধিতা করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক আবেদন নামঞ্জুর করে খালেদা জিয়াকে আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানিতে বক্তব্য দেওয়া জন্য প্রস্তুতি নিতে বলেন।

0 comments:

Post a Comment