Last update
Loading...

২০১৫ বিশ্বকাপ মনে পড়ছে মাশরাফির

দু’বছরের ব্যবধানে দুটি ম্যাচ। দুটিই বৃষ্টির বাধায় পরিত্যক্ত। বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সবশেষ দুটি ম্যাচই জয়শূন্য। দু’বারই দু’দল পেয়েছে এক পয়েন্ট করে। আগেরবার সেই এক পয়েন্ট বাংলাদেশের জন্য হয়ে উঠেছিল মহামূল্য। এবার? ২০১৫ বিশ্বকাপে গ্রুপপর্বে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশর ম্যাচ ছিল ব্রিসবেনে। মাইকেল ক্লার্কের দল ছিল পরিষ্কার ফেভারিট। কিন্তু খেলা হয়নি বৃষ্টিতে। সেই ম্যাচ থেকে পাওয়া এক পয়েন্ট পরে মসৃণ করে দিয়েছিল বাংলাদেশের কোয়ার্টার ফাইনালের পথ। ইংল্যান্ডকে হারানোর পর সেই একটি পয়েন্ট গড়ে দিয়েছিল ব্যবধান। সেই স্মৃতি আবার নাড়া দিচ্ছে মাশরাফিকে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সোমবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের এক পয়েন্টকে বলা যায় বিশ্বকাপের চেয়েও বেশি সৌভাগ্যের।
প্রায় হেরে যাওয়া ম্যাচ থেকে পয়েন্ট পেয়ে টুর্নামেন্টে টিকে গেছে বাংলাদেশ। সৌভাগ্যের সেই পয়েন্টই স্বপ্ন দেখাচ্ছে মাশরাফিকে। ‘২০১৫ বিশ্বকাপ মনে পড়ছে আমার। অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ থেকে একটি পয়েন্ট পেয়েছিলাম আমরা। সেটি আমাদের দারুণ সাহায্য করেছিল। আমরা গ্রুপপর্ব উতরেছিলাম। এবারও আমরা এক পয়েন্ট পেয়েছি, এবারও সুযোগ আছে,’ গত পরশু বলেছেন তিনি। মাশরাফি যোগ করেন, ‘হতে পারে যেকোনো কিছুই। নিউজিল্যান্ডকে হারাতে হবে আমাদের, অন্য ম্যাচগুলোর ফলের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে। আমাদের কাজ হবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ ক্রিকেট খেলা। এরপর কে জানে, আমরা যেতেও পারি (সেমিতে)।’ সেবারের এক পয়েন্ট যেমন মহামূল্য হয়ে উঠেছিল পরে ইংল্যান্ডকে হারানোয়, এবারও এক পয়েন্টের মূল্য বাড়বে শুধু নিউজিল্যান্ডকে হারাতে পারলেই। শুক্রবার সেই ম্যাচ কার্ডিফে। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

0 comments:

Post a Comment