Last update
Loading...

মজাদার খাবার ফালুদা

সারা দিন রোজা রাখার পর এমন কিছু খাওয়া উচিত যা শরীরে প্রশান্তি এনে দেয়। ফালুদা তেমনই একটি খাবার। এ সময়ে ইফতারে ঠাণ্ডা কিছু খেয়ে মন জুড়াতে চান সবাই। ঠাণ্ডা এবং স্বাস্থ্যকর খাবার একই সঙ্গে পাওয়া মুশকিল। ফালুদা এমন একটি খাবার যা নিশ্চিন্তে খাওয়া যায়। কারণ এর প্রায় সব উপাদানই স্বাস্থ্যসম্মত ও পুষ্টিগুণে ভরা। রোজার সময় বিভিন্ন ইফতার বাজারে ফালুদা বিক্রি করা হয়ে থাকে। সেখান থেকে চাইলে অনায়াসেই ফালুদা সংগ্রহ করা যায় এবং অনেকে কিনেনও বটে। রাজধানীর ইফতার বাজারগুলো ঘুরে দেখা গেছে, সেখানে প্রচুর পরিমাণে ফালুদা বিক্রি হচ্ছে। প্লাস্টিকের নানান সাইজের ওয়ানটাইম কন্টেইনারে করে এসব ফালুদা বিক্রি করা হয়ে থাকে। ফালুদা তৈরির উপকরণ হিসেবে ব্যবহার করা হয়- সাবু দানা, ঘন দুধ, কনডেন্সড মিল্ক, চিনি, সিদ্ধ করা নুডলস, পেস্তা বাদাম কুঁচি, কাজু বাদাম, স্ট্রবেরি, আম, কলা, আপেল, আঙ্গুর কুঁচি, দই, বরফ কুঁচি ও জেলি। পানি দিয়ে সাবু দানা সিদ্ধ করে নেয়া হয়। ঘন দুধ, কনডেন্সড মিল্ক ও চিনি একসঙ্গে জ্বাল দিয়ে ঘন করে ঠাণ্ডা করা হয়। তারপর একটি বাটিতে প্রথমে সেদ্ধ সাবু দানা ও নুডলস এরপর ঘন দুধ দেয়া হয়। এরপর এতে বাদাম কুঁচি, ঘন দুধ, নুডলস, ফলের টুকরো, বরফ কুঁচি দিয়ে পরিবেশন করা হয়। অনেকে আবার ফালুদার সঙ্গে আইসক্রিমও মেশান।
রাজধানীর সবচেয়ে ঐতিহ্যবাহী ও বড় ইফতার বাজার চকবাজারে বসে। এখানে ইফতারের খাবার হিসেবে ফালুদা বিক্রি করা হয়। ১০০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে এখানে ফালুদা কিনতে পাওয়া যায়। চকবাজারে অন্যান্য খাবার খোলাভাবে বিক্রি করা হলেও ফালুদা প্লাস্টিক কন্টেইনারে ঢেকে বিক্রি করা হয়ে থাকে। স্টার হোটেল অ্যান্ড কাবাবের রেস্টুরেন্টগুলোতেও ফালুদা বিক্রি করা হয়ে থাকে। এখানকার ফালুদার দাম পড়বে ১০০ থেকে ৩০০ টাকার মধ্যে। রাজধানীর হোটেল আল রাজ্জাকের ফালুদার বেশ নামডাক আছে। অন্যান্য হোলেটের মতো এখানেও ফালুদা বিক্রি হয় প্লাস্টিকের বিভিন্ন কন্টেইনারে। সবচেয়ে ছোটটির দাম পড়বে ১০০ টাকা। আর সবচেয়ে বড়টির দাম পড়বে ৫০০ টাকা। তবে ফালুদা এমন একটি খাবার যা রাজধানীর প্রায় সব হোটেল রেস্তোরাঁতেই প্রস্তুত করা হয়ে থাকে। বিভিন্ন জায়গার ফালুদার একেক রকম স্বাদ। ফালুদার সঙ্গে নানান মৌসুমি ফল ব্যবহার করা হয় অনেক সময়। বিভিন্ন জায়গার এসব ফালুদার দাম পড়বে ৮০ থেকে ২০০ টাকা। গুলশান বনানীর বিভিন্ন রেস্তোরাঁয়ও ফালুদা বিক্রি করা হয়ে থাকে। হান্ডির ফালুদার বেশ নামডাক আছে।

0 comments:

Post a Comment