Last update
Loading...

আমিরের পরিবার এখন সত্যিই ‘আমির’

এ যেন রূপকথার প্রত্যাবর্তন। বছরকয়েক আগেও গ্রামের বাড়িতে পড়শিরা যার দিকে বাঁকা চোখে তাকাত, এখন তারাই পাক পেসার মোহাম্মদ আমির এবং তার পরিবারকে দেখছে সম্ভ্রমের দৃষ্টিতে। সাত বছর আগে স্পট-ফিক্সিংকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে পাঁচ বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছিল আমিরকে। যে দিনগুলোর কথা আজও ভুলতে পারেন না এই পাক পেসারের দুই ভাই নাভিদ ও ইজাজ। তারাই এখন বলছেন, ‘রোববার ওভালে নতুন বল হাতে আমিরের স্পেলটাই সব লজ্জা ধুয়ে পরিবারকে সম্ভ্রমের জায়গায় দাঁড় করিয়ে দিয়েছে।’ নাভিদ বলেন, ‘রাওয়ালপিন্ডিতে চাঙ্গা বুঙ্গিয়াল গ্রামে তখন থাকতাম আমরা। আমির স্পট-ফিক্সিংয়ে যখন দোষী সাব্যস্ত হয়, তখন গ্রামে লোকের সঙ্গে মিশতে বা কথা বলতেই লজ্জা করত। তারপর লাহোরে চলে আসি আমরা। আমাদের অনেক আত্মীয়ই রয়েছেন রাওয়ালপিন্ডিতে। এখন গ্রামে গেলে ভাইয়ের জন্যই ফের চোখ তুলে সবার সঙ্গে কথা বলতে পারব।’ পাকিস্তানের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের আনন্দে তিনি বলেন, ‘পাঁচ বছরের নির্বাসন কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার পর আমির চেয়েছিল এমন কিছু পারফরম্যান্স করতে, যা ওকে আলাদাভাবে চিনিয়ে দেবে। রোববার ওভালে সেটা ও করে দেখাল।’ ওয়েবসাইট।

0 comments:

Post a Comment