Last update
Loading...

চানপাড়ায় কিছু মেলেনি, এখনো দুটি বাড়ি ঘিরে র‌্যাব

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার তিনটি গ্রামে 'জঙ্গি আস্তানা' সন্দেহে তিন বাড়ি ঘিরে অবস্থান নেয়া এক বাড়ির অভিযান সম্পন্ন করেছে র‌্যাব। বুধবার সকাল ৮টায় চানপাড়া গ্রামের আবদুল মজিদের বাড়িতে 'জঙ্গি আস্তানা' সন্দেহে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে ঘিরে রাখা ওই বাড়িটি থেকে জঙ্গি সদস্য বা কোনো অস্ত্র-বিস্ফোরকও মেলেনি। তবে বাড়ির মালিক আবদুল মজিদকে (৪২) আটক করেছে র‌্যাব। মজিদ ওই বাড়ির তৌবরুল হকের ছেলে। র‌্যাব- ৫ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহবুব আলম জানান, তাকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়েছে। তবে বাড়িটি থেকে কোনো জঙ্গি সদস্য বা অস্ত্র-বিস্ফোরক মেলেনি বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা। মঙ্গলবার গভীর রাত থেকে গোমস্তাপুর উপজেলার  চানপাড়া, চকপোস্তুম ও বালুগ্রাম গ্রামের তিনটি বাড়ি ঘিরে অবস্থান নেয় র‌্যাবের বিপুল পরিমাণ সদস্য।
সকাল ৮টায় চানপাড়া গ্রামের মজিদের বাড়ির অভিযান সম্পন্ন হলেও এখনো বালূগ্রামের পুকুরের বাড়ি ও চকপোস্তুম ইজাবুল হকের বাড়ি ঘিরে রেখেছে র‌্যাব। র‌্যাবের ভাষ্য, মঙ্গলবার রাতে জঙ্গিবিরোধী অভিযানে সন্দেহভাজন তিনজনকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে তিন কেজি গান পাউডার, একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন জব্দ করা হয়। ওই তিনজনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গোমস্তাপুর উপজেলার তিনটি গ্রামের তিনটি বাড়ি ঘিরে অবস্থান নেয় র‌্যাব। আটকরা হলো- সুকুদ্দি, সাইফুল ও জাহাঙ্গীর। তাদের বাড়ি গোমস্তাপুর। চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব-৫-এর কোম্পানি কমান্ডার এ কে এম এনামুল করিম বুধবার ভোরে জানিয়েছিলেন, ঘিরে রাখা বাড়িগুলোতে 'জঙ্গি সদস্যরা' থাকতে পারে। এছাড়া ওই বাড়িগুলোতে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরকও রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে চানাপাড়া গ্রামের মজিদের বাড়িতে অভিযান শেষে র‌্যাব জানায়, সেখানে অস্ত্র-বিস্ফোরক মেলেনি। বাড়ির মালিক আবদুল মজিদকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়েছে।

0 comments:

Post a Comment