Last update
Loading...

রাঙ্গাবালীতে আ’লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের একই জায়গায় সভা হওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মৌডুবির কাটাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্র জানায়, শুক্রবার বিকেলে ওই ইউনিয়নের কাটাখালী সরকারি প্রাথমিক মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক দাবি করে ড. আরিফ বিন ইসলামের আলোচনা সভার আয়োজন করেন। পূর্ব নির্ধারিত ওই সভাস্থলের কাছেই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল ইসলাম লিটুর সমর্থকরা পাল্টা সভার আয়োজন করে। একই জায়গায় দুই পক্ষের সভা হওয়ায় উত্তেজনা বিরাজ করছিল সভাস্থলে। একপর্যায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে যায়। এতে দফায় দফায় সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক দাবি করা ড. আরিফ বিন ইসলাম বলেন, আমার পূর্ব নির্ধারিত সভাস্থলের কাছে এনামুল ইসলাম লিটুর লোকজন পাল্টা সভার আয়োজন করে।
একইসঙ্গে লিটুর নেতৃত্বে প্রায় দেড়-দুই শ’ সন্ত্রাসী আমার সভায় অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমার অসংখ্য নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এ অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল ইসলাম লিটু বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভুয়া আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে সভার আয়োজন করে আরিফ বিন ইসলাম। একই জায়গায় আমার যুবলীগের লোকজন সভা করতে চায়। এ বিষয়টি আমি ওসিকে জানাই। অথচ পুলিশ ও আরিফের লোকজন আমার যুবলীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এতে যুবলীগের বেশ কিছু নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার ওসি শামসুল আরেফীন বলেন, আরিফ বিন ইসলামের পূর্ব নির্ধারিত সভাস্থলের কাছাকাছি এনামুল ইসলাম লিটুর যুবলীগের লোকজন পাল্টা সভার আয়োজন করে। এতে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে জড়িয়ে যায়। তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

0 comments:

Post a Comment