Last update
Loading...

হত্যা মামলার প্রধান আসামি ক্রিকেটার মুশফিকের বাবা

বগুড়ায় জাসদ নেতার ছেলে স্কুলছাত্র মাসুক ফেরদৌস মাসুক হত্যাকাণ্ডে বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম মিতুর বাবা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাহবুব হামিদ তারাকে প্রধান আসামি করে ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মাসুকের বাবা ও জাসদ (ইনু) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক এমদাদ। মঙ্গলবার বিকেলে বগুড়া সদর থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলার অন্য আসামিরা হলেন - ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমের চাচা বগুড়া পৌরসভার ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মেজবাহুল হামিদ (৪৫), মোঃ লাল মিয়া (৪০), মোঃ খায়রুল (৪২), আল আমিন হেলাল (৪০), ছামছুল (৪৮), মোঃ তারাজুল ইসলাম (৪২), মোঃ নাইম ইসলাম (১৮), মোঃ অনিক ইসলাম (১৯), মোঃ নাহিদ (৩২), কাঞ্চন (২৮), ফয়সাল (২২), শাকিল (২৮), সাকিব (২৪), বিটুল (২৮) ও আল মামুন(৩০)। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, মাহবুব হামিদ তারা (৫৫) ও তার ছোট ভাই বগুড়া পৌরসভার ১৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মেজবাহুল হামিদের (৪৫) সাথে পারিবারিক শত্রুতা এবং মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে বাদির শত্রুতা চলে আসছিল। আসামিরা বিভিন্ন সময় বাদি ও বাদির পরিবারের ক্ষতি করার পরিকল্পনা করতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় গত শনিবার রাতে প্রতিবেশী বেলাল হোসেন ফকিরের বাড়িতে তার ছেলে নাইমকে দিয়ে মাসুক ফেরদৌস মাসুককে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়।
প্রধান আসামি মাহবুব হামিদ তারা ও অপর আসামি লালমিয়া মাসুককে জাপটে ধরলে অপর আসামি ফয়সাল মাসুককে হত্যার উদ্দেশ্যে পিছন থেকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এসময় মাসুক মাটিতে লুটিয়ে পড়লে হত্যাকারীরা উল্লাস করে চলে যায়। অধিক রক্তক্ষরণে মাসুকের মৃত্যু হয়। এদিকে, হত্যাকাণ্ডের পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হলেও সাফিন নামে এক কিশোরকে রেখে বাকি দু’জনকে পুলিশ ছেড়ে দিয়েছে। আটক সাফিন নিহত মাসুক ফেরদৌসের বন্ধু। বগুড়া সদর থানার ইন্সপেক্টর (ওসি) এমদাদ হোসেন জানান, মাসুকের বাবা এমদাদুল হক এমদাদ মাহবুব হামিদ তারাকে প্রধান আসামি করে ১৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দাখিল করেছেন। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে। এদিকে, স্কুলছাত্র মাসুকের খুনিদের গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তি প্রদানের দাবিতে এলাকাবাসী মঙ্গলবার মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

0 comments:

Post a Comment