Last update
Loading...

হাওরে দুর্নীতি লুটপাটের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলুন : সেলিম

সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম হাওর সমস্যাকে জাতীয় সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করে প্রকৃতি-পরিবেশের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ-স্বল্প মেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদী নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছেন। একই সাথে তিনি সতর্ক করে বলেন উন্নয়নের প্রসব বেদনার নামে হাওরের স্বাভাবিক প্রকৃতি-পরিবেশ নষ্ট করা চলবে না। হাওরবাসির প্রতি সরকারের ক্রমাগত অবহেলা-দুর্নীতি-লুটপাটের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ শক্তিশালী আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান। আর এজন্য আগামী ২০ মে ঢাকায় হাওরবাসী জনপ্রতিনিধি, বিশেষজ্ঞ ও শ্রেণী-পেশার মানুষদের নিয়ে অনুষ্ঠিতব্য হাওর কনভেনশন সফল করারও আহ্বান জানান তিনি। হাওর অঞ্চলের পরিস্থিতি ও হাওরবাসির বাস্তব অবস্থা সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করার জন্য সিপিবি-বাসদের কেন্দ্রীয় একটি প্রতিনিধি দল গত ২ ও ৩ মে সুনামগঞ্জের শনির হাওর ও হাইলের হাওর অঞ্চলে সফর করেন। সফরের অভিজ্ঞতা ও হাওরবাসীর বাস্তব অবস্থা তুলে ধরার জন্য সিপিবি-বাসদ আজ মুক্তিভবনের প্রগতি সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। এতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুজাহিুদুল ইসলাম সেলিম এসব কথা বলেন। তিনি হাওরের প্রকৃতির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে রাবার ড্যাম নির্মাণ, ডুবো রাস্তা নির্মাণ না করে আবুরা রাস্তা ও ক্যান্টনমেন্ট নির্মাণ হাওর অঞ্চলকে আরো ভয়াবহ দুর্যোগের মধ্যে নিপতিত করবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন। সংবাদ সম্মেলনে খালেকুজ্জামান বলেন, প্রতি বছরেই হাওরে ৫-৩০% ক্ষতি হয়। কিন্তু এবার প্রায় ৯০% হাওর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ফলে বিষয়টিকে প্রতিবারের ন্যায় দেখার কোন সুযোগ নেই। তিনি বলেন, আমরা ২দিন হাওরবাসির মধ্যে ছিলাম। প্রত্যক্ষ করেছি তাদের ক্ষতির ভয়াবহতা।
যে কারনে আমরা হাওর অঞ্চলকে ‘দুর্গত এলাকা’ ঘোষণা করার দাবি করছি। কিন্তু সরকারের কর্তাব্যক্তিরা, মন্ত্রী-এমপিরা জাতিকে নানা বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দিচ্ছেন। কেউ কেউ বলছেন,‘ঐ এলাকার অর্ধেক মানুষ না মারা গেলে আমরা দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে পারি না’ এটা হাওরবাসির দুর্দশা নিয়ে তামাশা ছাড়া আর কিছুই হতে পারে না। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সিপিবি’র কেন্দ্রীয় নেতা ও হাওর পরিদর্শন টিমের অন্যতম সদস্য কমরেড সরদার রুহিন হোসেন প্রিন্স। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিপিবি প্রেসিডিয়াম সদস্য ও পরিদর্শন টিম সদস্য সাজ্জাদ জহির চন্দন, বাসদ কন্দ্রেীয় কমিটির সদস্য পরিদর্শন টিমের সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, সিপিবি’র কেন্দ্রীয় কমিটি সদস্য ও পরিদর্শন টিম সদস্য আব্দুল্লাহ-আল কাফি রতন, পরিদর্শন টিম সদস্য ও বাসদ নেতা কমরেড নিখিল দাস। আরোও উপস্থিত ছিলেন বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাহেদুল হক মিলু, রাজেকুজ্জামান রতন, সিপিবি নেতা কাজী রুহুল আমিন, ক্ষেতমজুর নেতা অর্ণব সরকার, বাসদ নেতা খালেকুজ্জামান লিপন, আঃ রাজ্জাক প্রমুখ। সংবাদ সম্মেলন থেকে আরো বলা হয়, হাওর এর সমস্যার স্থায়ী সমাধানকল্পে আগামী ২০ মে “হাওর কনভেনশন” করে সবার মতামতের ভিত্তিতে সমস্যার কারণ ও প্রতিকারে করণীয় বিষয়ে বিস্তারিত মতামত তুলে ধরা হবে। বর্তমান সংকট মোকাবেলায় হাওরবাসিদের বাঁচাতে নি¤œলিখিত ৮ দফা পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য জোর দাবি জানানো হয়।

0 comments:

Post a Comment